চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

ভেজাল সচেতনতায় ‘চিনিবাবা’

Nagod
Bkash July

দ্রব্যমূল্যে ভেজাল মেশানো নিত্যনতুন ঘটনা। জিনিসপত্রে ভেজাল মেশানোর বিষয়টি সাধারণ মানুষ জানলেও তাদের করার কিছু থাকে না। বাধ্য হয়েও অনেক সময় ভেজাল পণ্য কিনতে হয়। যদিও সরকার ভেজাল রোধে অভিযান চালাচ্ছে নিয়মিত।

Reneta June

এবার এই ভেজাল নিয়ে চ্যানেল আইয়ের জন্য ‘চিনিবাবা’ নামের একটি টেলিছবির গল্প লিখলেন জনপ্রিয় নাটক ‘স্বর্ণমানব’-এর গল্পকার ও ঢাকা পশ্চিমের ভ্যাট কমিশনার ড. মইনুল খান। এটি পরিচালনা করেছেন সরদার রোকন।

‘চিনিবাবা’-তে অভিনয় করেছেন আনিসুর রহমান মিলন, অপর্ণা ঘোষ, রহমত আলী, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, আজিজুল হাকিমসহ আরও অনেকে।

ঈদের তৃতীয় দিন (বুধবার) বিকেল সাড়ে চারটায় চ্যানেল আইতে টেলিছবিটি প্রচারিত হওয়ার পর এবার চ্যানেল আইয়ের ইউটিউবে প্রকাশ পেল।

টেলিছবিটি নিয়ে ড. মইনুল খান বলেন: ভেজাল আমাদের প্রতিটি জীবন ও পরিবারকে দুর্বিসহ করে তুলেছে। দ্রুত টাকা বানানোর নেশায় কেউ কেউ এই অনৈতিক ও সমাজবিরোধী কাজটিতে লিপ্ত হচ্ছেন। আবার কোনো নির্মম বাস্তবতায় তাদেরকেও এই ব্যাধি আক্রান্ত করছে। এমন একটা রূঢ় অভিজ্ঞতা নিয়ে জীবনধর্মী গল্প উপস্থাপন করা হয়েছে এই টেলিছবিতে।

নাটকের গল্পে দেখা যায়, গ্রামের বেকার ও উচ্চাকাঙ্ক্ষী পিকলু বিশ্বাস বন্ধুর পরামর্শে টাকার পেছনে ছোটে। নিজ এলাকায় ‘চিনিবাবা’ নামে মিষ্টির দোকান খুলে বসে। পিকলু অল্প দিনে বেশি টাকা আয়ের আশায় মিষ্টিতে ভেজালের আশ্রয় নেয়। ব্যবহার করে কৃত্রিম ও নিষিদ্ধ ঘনচিনি। আর এই ভেজালজনিত নানা ব্যধি সারা গ্রামে ছড়িয়ে পড়ে। শিশুরা এতে বেশি আক্রান্ত হয়। এর উপসর্গ থেকে পিকলুর একমাত্র আদরের মেয়ে টুম্পা মুক্তি পায়নি। চরম অনুশোচনা ও আত্মউপলব্ধি তাকে স্পর্শ করে। শুরু হয় সংকট এবং তা ধীরে ধীরে দানা বাঁধে। এভাবে গল্প এগিয়ে যায়।

BSH
Bellow Post-Green View