চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘ভুয়া’ ক্লিনিক নিয়ে প্রতিবেদনের পরে মিললো সাংবাদিকের পোড়া লাশ!

ভারতের বিহারের মধুবনী জেলায় মেডিকেল ক্লিনিকের সাথে জড়িত একটি কেলেঙ্কারির পর্দা ফাঁস করা ২৩ বছর বয়সী এক সাংবাদিক নিখোঁজ হওয়ার কয়েক দিন পরে তাকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছে। সেই জেলারই একটি গ্রামের কাছে রাস্তার পাশে তাঁর পোড়া লাশ পাওয়া গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

হিন্দুস্থান টাইমস এ তথ্য জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, বুদ্ধিনাথ ঝা ওরফে অবিনাশ ঝা নামক সেই সাংবাদিক একটি স্থানীয় নিউজ পোর্টালের জন্য কাজ করছিলেন এবং ‘ভুয়া’ ক্লিনিকগুলির পর্দা ফাঁস করার জেরে সম্প্রতি এলাকার বেশ কয়েকটি ক্লিনিক বন্ধ হয়। এরপরই সেই সাংবাদিক নিখোঁজ হন। নিখোঁজ হওয়ার দুই দিন আগে তিনি ফেসবুকে একটি পোস্ট লিখেছিলেন যাতে তিনি এই ধরনের ক্লিনিকের কথা উল্লেখ করেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

অভিযোগ রয়েছে, বিষয়টির গভীরে যাওয়ায় অবিনাশ ঝা লক্ষাধিক লাখ টাকার ঘুষের প্রস্তাব এবং হুমকি উভয়ই দেওয়া হয়েছিল। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, অবিনাশ ঝাকে মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে স্থানীয় থানা থেকে প্রায় ৪০০ মিটার দূরে বেনিপট্টির লোহিয়া চকের কাছে তাঁর বাড়ির কাছে শেষ দেখা গিয়েছিল।

সাংবাদিকের বাড়ির কাছের একটি সিসিটিভি থেকে পাওয়া ফুটেজ অনুসারে, অবিনাশ ঝা মোবাইল ফোনে কথা বলার জন্য তার বাড়ি থেকে বেশ কয়েকবার কাছাকাছি লেনের দিকে হেঁটে গিয়েছিলেন। গলায় হলুদ স্কার্ফ পরে রাত ৯টা ৫৮ মিনিটে শেষবারের মতো বাড়ি থেকে বের হন তিনি। এরপর তিনি স্থানীয় চক, অন্য একটি বাড়ি এবং বেনিপট্টি থানার পাশ দিয়ে হেঁটে যান।

স্থানীয় একজন বলেন, তিনি অবিনাশ ঝাকে ১০টা ৫ মিনিট থেকে ১০টা ১০ মিনিটের মধ্যে বাজারে দেখেছেন।

বিজ্ঞাপন