চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভিয়েতনাম বাংলাদেশ দূতাবাসে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি

আগস্টের মাসব্যাপী কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়তে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পালন করেছে।বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকীতে নানান কর্মসূচি পালন করে হ্যানয়ের বাংলাদেশ দূতাবাস।

ভিয়েত ডাক ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের সহযোগিতায় সোমবার দূতাবাসে সকাল থেকে এই কর্মসূচি শুরু হয়। ভিয়েতনামে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত সামিনা নাজ নিজ বাসভবন থেকে রক্তদানের মাধ্যমে এই কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন। এছাড়াও দূতাবাসের কর্মচারী ও ভিয়েতনামের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচিতে অংশ নেন।

এমন কর্মসূচি নেওয়ার জন্য রাষ্ট্রদূত সামিনা নাজকে ভিয়েত ডাক ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের পক্ষ থেকে বিশেষ ধন্যবাদ ও সাধুবাদ জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, রক্তদান একটি মহৎ মানবিক কাজ। এ কাজে এগিয়ে আসার জন্য বাংলাদেশ-ভিয়েতনাম বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক যেমন আরো গভীর হবে, তেমনি স্বেচ্ছায় সংগৃহীত রক্ত অনেক পীড়িত ও অসহায় মানুষকে সহায়তা করবে।

রাষ্ট্রদূত সামিনা নাজ বলেন, বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বাংলাদেশকে স্বাধীনতা অর্জন ও দেশ গঠনে যে অবিস্মরণীয় নেতৃত্ব ও অবদান রেখেছেন, স্বেচ্ছায় রক্তদান করে বাংলাদেশ দূতাবাস এই মহান নেতার প্রতি তাদের বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করছে। এই কর্মসূচি বাংলাদেশ-ভিয়েতনাম বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের একটি নিদর্শন হিসেবেও উল্লেখ্য।

রক্তদান কর্মসূচী সমাপান্তে দূতাবাসের পক্ষ থেকে স্বেচ্ছায় রক্তদানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে মুজিব বর্ষের লোগো সম্বলিত স্যুভেনির মগ উপহার দেওয়া হয়।

শোকাবহ আগস্টে বাংলাদেশ দূতাবাস ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাৎ বার্ষিকী যথাযথ মর্যাদা ও ভাব-গম্ভীর পরিবেশে স্মরণ করা হয়। জাতীয় শোক দিবসকে স্মরণ ও ভ্রাতৃপ্রতিম ভিয়েতনামি জনগণের প্রতি সৌহার্দ্য প্রদর্শন স্বরুপ রাষ্ট্রদূত মিজ সামিনা নাজ ভিয়েতনামে কোভিড-১৯ মহামারির কারণে অসহায় ও দুস্থ পরিবার এবং কোভিড-১৯ সম্মুখযোদ্ধাদের মধ্যে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করার জন্য ভিয়েতনাম ফাদারল্যান্ড ফ্রন্টের কাছে খাদ্য সামগ্রী হস্তান্তর করেন।

বিজ্ঞাপন