চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ভারতে জিকা ভাইরাসের টিকা আবিষ্কারের দাবি

বিশ্বজুড়ে জিকা ভাইরাসজনিত উদ্বেগের মধ্যেই ভারতের হায়দারবাদ ল্যাবের একদল বিজ্ঞানী এর প্রতিরোধে বিশ্বের প্রথম টিকা আবিষ্কারের দাবি করেছে।

টিকা বা চিকিৎসা না থাকা এই ভাইরাসের সংক্রমণের ফলে অপরিণত মস্তিষ্কের শিশু জন্মগ্রহণের অস্বাভাবিকতা মোকাবেলায় ‘দুই-দুইটি’ ভ্যাকসিন তৈরির কথা জানিয়েছে ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি সূত্রে জানা যায়, বিশ্ব যখন ভ্যাকসিনের খোঁজ করছে এবং অন্যান্য বৈশ্বিক কোম্পানিগুলো এ সংক্রান্ত গবেষণায় প্রথম পদক্ষেপ নিয়েছে তখনই জিকা ভ্যাকসিন প্যাটেন্ট করার কথা জানায় প্রতিষ্ঠানটি।    

ভারত বায়োটেক লিমিটেডের চেয়ারম্যান এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর ডা. কৃষ্ণা এলা বলেন, প্রায় নয় মাস আগে জিকার উপর আমরা সম্ভবত বিশ্বে প্রথমবারের মতো টিকা কোম্পানি হিসেবে প্যাটেন্টের আবেদন করেছিলাম।

আনুষ্ঠানিকভাবে জীবিত জিকা ভাইরাস আমদানি করে হায়দারবাদের কোম্পানি এখন দুইটি টিকার আবিষ্কার করেছে। কিন্তু প্রাণী বা মানুষের উপর এর পরীক্ষা চালানোকে আরও দীর্ঘ প্রক্রিয়া বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

ডা. এলা জানান, এই বিষয়ে তিনি সরকারের সমর্থন চেয়েছেন এবং ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চ (আইসিএসআর) সহযোগিতার জন্য এগিয়ে এসেছে।

চিকিৎসক এবং আইসিএমআর’এর ডিরেক্টর জেনারেল ডা. সৌম্য স্বামিনাথান বলেন, “আমরা মাত্রই ভারত বায়োটেকের জিকা ভ্যাকসিন ক্যান্ডিডেট-এর বিষয়ে জানতে পেরেছি। বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিভঙ্গিতে আমরা বিষয়টি পরীক্ষা করবো এবং একে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সম্ভাব্যতা খতিয়ে দেখবো। মেক ইন ইন্ডিয়া পণ্যের এটি একটি ভালো উদাহরণ।”

সবকিছু অনুকূলে থাকলে তার কোম্পানি চার মাসে সর্বোচ্চ ১০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন তৈরি করতে পারবে বলে জানান ডা. এলা। ব্রাজিলের মতো দেশগুলোতে এই ভ্যাকসিন সাহায্য করতে পারে উল্লেখ করে ডা. এলা ভ্যাকসিনের উন্নয়ন এবং সরবরাহে অগ্রাধিকারের বিষয়টি নিশ্চিতকরণে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করেন।  

পূর্বে তেমন গুরুত্ব না দেয়া জিকা রোগটি যা এখন বিশ্বে মহামারি আকার নিয়েছে তার ভ্যাকসিন আবিষ্কারে এত আগেই কাজ করার দূরদৃষ্টি দেখানোর জন্য ভারত বায়োটেকের প্রশংসা করেছে বিশেষজ্ঞরা।

জিকা এবং এর কারণে ভুমিষ্ঠ শিশুর শারীরিক ত্রুটির বেশ কয়েকটি ঘটনায় বিশ্বে জনস্বাস্থ্যের জন্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ল্যাটিন আমেরিকার ২০ টিরও বেশি দেশে জিকা ভাইরাসের ব্যাপক বিস্তার এবং যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে যৌনতার মাধ্যমে এই ভাইরাস সংক্রমণের একটি বিরল ঘটনার তথ্য পাওয়া গেছে।