চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘বিনা চিকিৎসায়’ ঢাবি ছাত্রের মৃত্যু

বিভিন্ন হাসপাতালে ঘুরে কোথাও চিকিৎসা না পেয়ে মারা গেছেন দীর্ঘদিন ফুসফুসের সমস্যায় ভুগতে থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সুমন চাকমা। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর ইনস্টিটিউটের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ছিলেন সুমন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় জুম্ম শিক্ষার্থী পরিবার চ্যানেল আই অনলাইনকে তার মৃত্যু সংবাদ নিশ্চিত করে। সোমবার সকাল আটটায় খাগড়াছড়ির আগালাশিং পাড়ায় নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়।

বিজ্ঞাপন

সুমনের বিশ্ববিদ্যালয়ের বড় ভাই রিব্যাঙ দেওয়ান বলেন: ‘সুমন দীর্ঘদিন ধরে ফুসফুসের সমস্যায় ভুগছিল। এর আগে ভারতে তার চিকিৎসা হয়। পরে সুস্থ হয়ে দেশে আসে। গত মাসে আবার সে অসুস্থ হয়। তখন দেশে করোনা সংক্রমণ দেখা দেয়। এসময় সে রাজধানীর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যায় কিন্তু কোথাও তাকে ভর্তি নেওয়া হয় না। পরে সে নিজ বাড়িতে চলে যায়।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এর আগে গত মাসের ২৬ তারিখ সুমন তার ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেয়। ফেসবুকে সেটি তার শেষ স্ট্যাটাস। সে লিখে, ‘আমার করোনা হয়নি অথচ পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে করোনার জন্যই আমাকে মারা যেতে হবে।’

সুমনের বন্ধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষার্থী শাহীদুর রহমান শান্ত বলেন, ‘ওর নিজের ভবিষ্যতবাণীই সতি হলো। করোনা সন্দেহে বিনা চিকিৎসায় আরেকটি মৃত্যু হলো। ফুসফুসের পানি বেড়ে যাওয়ায় তার অসুস্থতা বেড়ে যায়, আর ঢাকার কোনো হসপিটাল এডমিট নিতে রাজি না হওয়ায় অবশেষে ধীরে ধীরে মৃত্যু হলো তার।’

সুমনের মৃত্যুর পর তার বন্ধু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী অলোক হাজরা ক্ষোভ প্রকাশ করে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেই স্ট্যাটাসেও তিনি সুমন চাকমার চিকিৎসা না পাওয়ার অভিযোগ তুলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।