চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বিজিএমইএ নির্বাচন: রুবানা হকের নেতৃত্বাধীন প্যানেলের জয়

তৈরি পোশাক শিল্পমালিক ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ জয় পেয়েছে প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের স্ত্রী রুবানা হকের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত ফোরাম প্যানেল।

এই প্যানেলের ২৬ জন প্রার্থীর সবাই বিজয়ী হয়েছেন। নির্বাচিতরা আগামী দুই বছরের জন্য বিজিএমইএ’র নেতৃত্ব দেবেন।

বিজ্ঞাপন

শনিবার রাত ৯টার পর ভোট গণনা শেষে বিজিএমইএ’র নির্বাচনী বোর্ডের দায়িত্বে থাকা মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই) সভাপতি ব্যারিস্টার নিহাদ কবির ফলাফল ঘোষণা করেন।

নির্বাচনের ফল অংশ নেওয়া সব প্যানেলই মেনে নিয়েছে। বিজয়ীরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করারও ঘোষণা দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

শনিবার সকাল ৮ টায় শুরু হয়ে বিকাল ৪টায় উৎসবমুখর পরিবেশে সদস্যদের ভোট প্রদানের মাধ্যমে বিজিএমইএর পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষ হয়। স্বাধীনতা পরিষদের প্যানেল লিডার জাহাঙ্গীর আলমের পোলিং এজেন্ট থাকতে না দেয়া ছাড়া কোন অভিযোগ ছিলো না। তবে প্রতিদ্বন্দ্বী সম্মিলিত-ফোরামের টীম লিডার রুবানা হকের নির্বাচন নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই। প্রায় ৮০ শতাংশ ভোট পড়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন পরিচালনা বোর্ড।

প্রায় ৫ বছর পর তৈরি পোশাক শিল্পমালিক ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএর নির্বাচন। সংগঠনটির ৩৫ পরিচালক পদে ঢাকায় ২৬ জন আর চট্টগ্রামে ৯ জন। চট্টগ্রামে সবাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ঢাকায় পরিচালক পদে নির্বাচনে সদস্যরা ভোট দিয়েছেন।

সাবেক ও বর্তমান সভাপতিসহ সদস্যদেরও ভোট দিতে আসার হার ছিলো চোখে পড়ার মতো। নির্বাচনে মূল প্রতিদ্বন্দ্বী সম্মিলিত-ফোরাম আর স্বাধীনতা পরিষদ। তাদের কারণেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে এটাই বড় বিজয় বলেছেন স্বাধীনতা পরিষদের দলনেতা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।

জয়ের ব্যাপারেও শতভাগ আশাবাদী ছিলেন সম্মিলিত-ফোরামের প্যানেল লিডার রুবানা হক।
নির্বাচনে কোন অনিয়ম হয় নাই নিশ্চিত করেছেন নির্বাচন পরিচালনা বোর্ডের সদস্যরা।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম মিলে মোট ভোটার ১৯শ’ ৫৫ জন। আগামী ১১ এপ্রিল নির্বাচনের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ হবে। এরপর ১৮ এপ্রিল অফিস বেয়ারার নির্বাচন এবং ২১ এপ্রিল দায়িত্ব নেবে নতুন কমিটি।

Bellow Post-Green View