চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাবরের আপিল শুনানি গ্রহণ করল হাইকোর্ট

অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং তথ্য গোপনের মামলায় পৃথক ধারায় আট বছরের কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে বিএনপি নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরের আনা আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেছেন হাইকোর্ট।

একইসঙ্গে তার অর্থদণ্ড স্থগিত করেছেন আদালত। বিচারপতি মো.সেলিমের হাইকোর্টের একক বেঞ্চ আজ এ আদেশ দেন।

বিজ্ঞাপন

আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।
গত ১২ অক্টোবর ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর বিচারক মো. শহিদুল ইসলাম পৃথক ধারায় এই মামলায় বাবরকে মোট ৮ বছরের দণ্ড দিয়ে রায় দেন। আট বছরের কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে খালাস চেয়ে গতকাল আপিল করেছেন লুৎফুজ্জামান বাবর।

বাবরের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপনের মামলাটি ২০০৮ সালের ১৩ জানুয়ারি রমনা থানায় দায়ের করা হয়। মামলাটি করেন দুদকের সহকারী পরিচালক মির্জা জাহিদুল আলম। তদন্ত শেষে ওই বছরের ১৬ জুলাই দুদকের উপসহকারী পরিচালক রূপক কুমার সাহা আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

২০০৭ সালের ২৮ মে তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময়ে যৌথবাহিনীর হাতে আটক হন। তখন থেকে কারাগারে বাবর। চট্টগ্রামে ১০ ট্রাক অস্ত্র উদ্ধার মামলা এবং ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় দণ্ডিত হন বাবর এসব মামলায়। তার সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ডের রায় হয়েছে।

বিজ্ঞাপন