চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতায় টেলিভিশনে সংবাদ প্রচার নয়: হাইকোর্ট

টেলিভিশন চ্যানেলের সংবাদ শিরোনাম কিংবা সংবাদের বিভিন্ন অংশ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতায় প্রচার করা যাবে না বলে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে এ রায় কার্যকর করতে বলা হয়েছে রায়ে। এসংক্রান্ত একটি রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে সোমবার বিচারপতি জুবায়ের রহমান চৌধুরী ও বিচারপতি শশাঙ্ক শেখর সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেয়।

বিজ্ঞাপন

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মাসুদ আহমেদ সাঈদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল অবন্তী নুরুল। আর একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. আসাদুজ্জামান।

এ রায়ের পরে আইনজীবী মাসুদ আহমেদ সাঈদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘সংবাদ শিরোনাম আপনি দিতে পারবেন। কিন্তু সেই সংবাদ শিরোনাম কোনো বিজ্ঞাপনদাতা বা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতায় (স্পন্সর) করতে পারবেন না।

বিজ্ঞাপন

কারণ, পৃষ্ঠপোষণকারী প্রতিষ্ঠান আপনার সংবাদ প্রচারের ক্ষেত্রে অর্থাৎ সম্পাদকীয়কে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে। যা সংবিধানের ৩১, ৩২, ৩৯ অনুচ্ছেদকে লঙ্ঘন। তাই সংবাদ শিরোনাম বা সংবাদের বিভিন্ন অংশে স্পন্সরিং করাটা অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।’

এ আইনজীবী আরো বলেন, ‘খবরের বিরতিতে বিজ্ঞাপনের বিরুদ্ধে আমরা না। আপনি যত খুশি বিজ্ঞাপন দেন। কিন্তু কোনো বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের পৃষ্ঠপোষকতায় তা করতে পারবেন না।’

এদিকে রায়ের বিষয়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস বলেন, ‘যতখুশি বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। তবে সেটা হতে হবে খবরের আগে পরে বা মাঝখানে বিরতি দিয়ে। কিন্তু সংবাদের শিরোনামসহ বিভিন্ন সেগমেন্টে স্পন্সর নিয়ে কোনো প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দেওয়া যাবে না।’

এর আগে গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুলের সাবেক শিক্ষক এম এ মতিনের জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২০১১ সালের ১৭ অক্টোবর এ সংক্রান্ত রুল জারি করেছিল বিচারপতি এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী ও বিচারপতি মো. নুরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ। সে রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে হাইকোর্ট আজ রায় দিলেন।

Bellow Post-Green View