চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ফ্লয়েডের মৃত্যু: অভিযুক্ত পুলিশের জামিনে লাগবে ১ মিলিয়ন ডলার

মিনিয়াপোলিসের নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন নাগরিক জর্জ ফ্লয়েড হত্যার দায়ে অভিযুক্ত সাবেক পুলিশ সদস্যকে প্রথমবারের মতো আদালতে হাজির করা হয়েছে। জামিন নিতে হলে তাকে শর্তযুক্ত ১ মিলিয়ন অথবা শর্তবিহীন ১.২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দিতে হবে বলে জানিয়েছেন আদালত।

প্রসিকিউটর বলেন, এই অভিযোগের নির্দয়তা এবং তার ফলে জনগণের যে ক্ষোভ দেখা যাচ্ছে, সে কারণেই তার জামিন ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের উপরে নির্ধারণ করা হয়েছে। ডেরেক চাওভিনের উপরে সেকেন্ড ডিগ্রি হত্যা ও নরহত্যার অভিযোগ তোলা হয়েছে। অন্য আরো তিন অফিসারের বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ডে সহায়তা ও পোষকতার অভিযোগ তোলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ফ্লয়েডের মৃত্যুতে বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদ শুরু হয়েছে এবং পুলিশ ব্যবস্থা পুনর্গঠনের দাবি তোলা হচ্ছে।

১৯ বছর ধরে পুলিশে কর্মরত চাওভিন সোমবার টেলিকনফারেন্সে আদালতে হাজির হন। ১৫ মিনিটের শুনানিতে তিনি কোনো কথাই বলেননি। তার হাতে হ্যান্ডকাফ ছিলো। কমলা রঙের জাম্পস্যুট পরে একটি ছোট টেবিলে বসে ছিলেন চাওভিন।

জজ জেনিস এম বলেন, চাওভিন কোনো শর্ত ছাড়াই ১.২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার দিয়ে জামিন নিতে পারেন। অথবা ১ মিলিয়ন ডলার দিয়ে শর্ত পূরণ করতে পারেন। শর্তগুলো হলো ফ্লয়েডের পরিবারের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করবেন না, অস্ত্র জমা দিবেন এবং আইন প্রয়োগকারী বা নিরাপত্তার কাজ আর করবেন না।

বিজ্ঞাপন

অভিযুক্ত পুলিশের আইনজীবীও জামিনের অর্থমূল্যের বিরোধিতা করেননি। বর্তমানে মিনেসোটার ওক পার্ক হাইটসের রাজ্য কারাগারে আছেন চাওভিন। এর আগে কয়েকবার তাকে স্থানান্তরিত করা হয়। আগামী ২৯ জুন তাকে আবার আদালতে হাজির করা হবে।

গত ২৫ মে মিনিয়াপোলিসে পুলিশের হেফাজতে থাকার সময় মারা যান ৪৬ বছর বয়সী আফ্রিকান আমেরিকান নাগরিক জর্জ ফ্লয়েড।

৪৪ বছর বয়সী শ্বেতাঙ্গ সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক চাওভিনকে তার মৃত্যুর জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে।

অনলাইনে ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় যে, বেশ কয়েক মিনিট ধরে ফ্লয়েডের ঘাড়ের ওপর হাঁটু গেড়ে বসে থাকেন চাওভিন। ফ্লয়েড বারবারই বলছিলেন, তিনি শ্বাস নিতে পারছেন না।

পুলিশের হাতে নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার ঘটনায় প্রতিবাদের ঝড় ওঠে পুরো দেশজুড়ে। প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে দেশের বাইরেও।