চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

প্রধান বিচারপতির বক্তব্যে আইনমন্ত্রীর দ্বিমত

বিচার বিভাগের বিভিন্ন কাজে ধীরগতির জন্য ‘দ্বৈত শাসন’ বিষয়ে প্রধান বিচারপতির বক্তব্যের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেছেন, বিচার বিভাগ স্বাধীন; তাদের কাজে কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করে না সরকার। তবে প্রধান বিচারপতির বক্তব্যকে সমর্থন করেছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি।

বিজ্ঞাপন

নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ পৃথককরণের নয় বছর পূর্তিতে সোমবার এক বাণীতে প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা বলেছেন, দ্বৈত শাসনের ফলে বিচারকদের নিয়োগ সময়মতো না দেয়ার কারণে বিচার কাজে বিঘ্ন ঘটার পাশাপাশি জনগণের ভোগান্তি বেড়ে যায়।

এ সমস্যা সমাধানে বিচারকদের নিয়োগ, পদোন্নতি, বদলি এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ১৯৭২ এর সংবিধানে ১১৬ অনুচ্ছেদ পুনঃপ্রবর্তণের পক্ষে মত প্রকাশ করেন। এর একদিন পরই সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে প্রধান বিচারপতির বক্তব্য নিয়ে সরকারের অবস্থান জানান আইনমন্ত্রী।

বিজ্ঞাপন

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার কিন্তু কখনোই বিচার বিভাগের স্বাধীনতার ব্যাপারে কোন হস্তক্ষেপ করে নাই। বরঞ্চ বিচার বিভাগের স্বাধীনতাকে সুদৃড় করার জন্য প্রয়োজনীয় যা যা করণীয় তা করা হয়েছে। khokon

আরেক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান বিচারপতির বক্তব্যের প্রতি সমর্থন জানান সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন।

তিনি বলেন, ‘তিনি (প্রধান বিচারপতি) বলেছেন বিচার বিভাগের ধীর গতির কথা। তার বক্তব্যে স্পষ্ট হয়েছে আজকে দেশের বিচার ব্যবস্থায় দ্বৈত শাসন চলছে। বাস্তবেও তার বক্তব্যের প্রমাণ আমরা পাই।’

তবে এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন না সুপ্রীম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন।

Bellow Post-Green View