চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

পেঁয়াজ নিয়ে ‘পাইজ্জামি’

Nagod
Bkash July

দুষ্টু থেকে যেমন দুষ্টুমি তেমনি পাজি থেকে পাইজ্জামি।

তরকারির একটি বিশেষ উপকরণ পেঁয়াজ নিয়ে কারা যেন পাইজ্জামি শুরু করেছে। প্রায় দুই মাস ধরে এই পাইজ্জামি আমাদের মধ্যবিত্ত থেকে শুরু নিম্নবিত্ত আর গরিব মানুষকে নাকানি-চুবানি খাইয়ে ছাড়ছে। কোনো সুরাহা করা যায়নি এখন পর্যন্ত।

কেউ কেউ বলছেন, এ কোন দেশ! এ তো দেখি হীরক রাজার দেশ। এ তো দেখি মগের মুল্লুক। আসলে কি হচ্ছে? কেউ জানে না। শুধু জানে পেঁয়াজের দাম বেড়ে গেছে। ভদ্রলোকেরা পেঁয়াজ খায় না। খেলে মুখ থেকে গন্ধ বেরোয়। তাই না খাওয়াই ভালো। আরো কত কি ফতোয়া ছেড়েছে বাজারে মানুষ। না পাওয়ার যন্ত্রণা কত কষ্টের তা একমাত্র বিরহী যুবকই জানে। সেই যন্ত্রণার মতো পেঁয়াজ কিনতে না পেরে মুখ ফসকে যে যার মতো বলে যাচ্ছে। বলাটাই স্বাভাবিক।

এখন পর্যন্ত পেঁয়াজের ঝাঁজ বাজারে রয়ে গেছে। দেশি পেঁয়াজ এখনো ২২০ থেকে ২৪০ টাকা। আর আপেলের মতো মিয়ানমার আর তুরস্কের পেঁয়াজ ১৪০ থেকে ১৫০টাকা। সরকারের প্রাণপন চেষ্টা হোক আর কিছুটা ব্যর্থতাই হোক বাংলাদেশিরা এবার অনেক রকমের পেঁয়াজ দর্শন করতে পেরেছে এটাই বা কম কি?

অভিযোগ মতে দুষ্টুচক্র বা পাজিচক্র একটা কিছু করেছে, যার কারণে পেঁয়াজের এত ভাব বেড়েছে। থাকে না- মহল্লার সবচেয়ে সুন্দরী মেয়েটা একটু নাক উঁচু স্বভাবের। সে রকম আর কি! পেঁয়াজেরও এবার সেই ভাব প্রদর্শন চলছে বাংলাদেশে। কিছু একটা তো কেউ করেছে, এতে কোনো সন্দেহ নেই। একজন বাঘা ব্যক্তি যখন বলেন, পেঁয়াজের দাম সহজে এক শ’ টাকার নিচে সহজে নামবে না, তখনই বোঝা গেছে ডাল মে কুচ হায়।

মানুষের সন্দেহ হতেই পারে, কেন তিনি এ কথা বললেন? তার এ কথা শুনে ব্যবসায়ীরা তো সাহসী হয়ে উঠতেই পারে-ভাবতে পারে সরকারের উচু পর্যায়ের ব্যক্তি যখন এই কথা মুখ ফুটে বলেই ফেলেছেন তা হলে বাড়িয়েই দেখি না। এভাবে বাড়তে বাড়তে কোথায় গিয়ে ঠেকালেন তারা, তা দেশবাসী দেখলেন। বাংলাদেশে ইতিহাস নেই পেঁয়াজের কেজি কখনো ৩০০ টাকা হয়েছে, কিন্ত এবার হয়েছে।

এটাই কি কম কথা? রেকর্ড তো হলো। হোক না সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ। মানুষ পেঁয়াজ ছাড়া তো রান্না করা শিখলো? এই ফাঁকে কোটি কোটি টাকা তো কামানো হয়ে গেল সুবিধাভোগীদের! কারা কামালো? সেটা তো আর সাধারণ মানুষ জানতে পারলো না।
সরকারের কোন পর্যায়ের মানুষ এই পেঁয়াজ নিয়ে পাইজ্জামি করলো? সরকারের গোয়েন্দা সংস্থা জানতে পেরেছে? পারলেও কেন নাম প্রকাশ করলো না। ভাসুরদের নাম খবরদার নিতে নেই।

পাইজ্জামি যারা করেছে তাদেরকে ক্রসফায়ারে দেয়ার কথাও বলেছেন সংসদে একজন সাংসদ। তার মানে কি দাড়ালো?

পেঁয়াজ চাষি-সূত্রবাজারে গিয়ে কেউ কি দেখেছেন, পেঁয়াজ নেই। পেঁয়াজের সংকট কখনো বাজারে গিয়ে মনে হয়নি। তা হলে দাম বাড়িয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিলো কারা? কেউ জানে না।

বাণিজ্যমন্ত্রী আপনি অসহায়, কতটা অসহায় তা দেখলেন সাধারণ মানুষ। আপনার বলার কিছুই ছিল না… চেয়ে চেয়ে দেখলেন ১২০-১৫০-২০০-২২০-২৫০-২৮০-৩০০ টাকা হয়ে গেল এক কেজি পেঁয়াজের দাম।

আপনার জন্য সত্যিই মায়াই হচ্ছে!

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। চ্যানেল আই অনলাইন এবং চ্যানেল আই-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)

BSH
Bellow Post-Green View
Bkash Cash Back