চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘পাসপোর্ট থেকে ইসরায়েলের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া তোষণ নীতির দৃষ্টান্ত’

জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল

পাসপোর্ট থেকে ‘ইসরায়েল ব্যতীত’ বাক্য তুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত সাম্রাজ্যবাদী যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের তোষণ নীতির এক দৃষ্টান্ত বলে মন্তব্য করেছে জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল।

জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল সভাপতি বদরুদ্দীন উমর ও সম্পাদক ফয়জুল হাকিম এক বিবৃতিতে বুধবার পাসপোর্ট হতে ‘ইসরায়েল ব্যতীত বিশ্বের সকল দেশের জন্য প্রযোজ্য’ বাক্যটি তুলে দেয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে তারা বলেন: বর্ণবাদী সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরায়েলের সঙ্গে সরকারের কূটনীতিক, রাজনৈতিক, বাণিজ্যিক ও সামরিক সম্পর্ক স্থাপনের পথে এ প্রাথমিক পদক্ষেপ।

বিজ্ঞাপন

‘‘সাম্রাজ্যবাদী চক্রান্তে প্যালেস্টাইন ভূখণ্ডে সৃষ্ট ইসরায়েল রাষ্ট্র আরব অঞ্চলে সাম্রাজ্যবাদী আধিপত্য বিস্তারে তৎপর। বর্ণবাদী ও সন্ত্রাসী রাষ্ট্র ইসরায়েল ফিলিস্তিনি জনগণকে নিজ আবাসভূমি হতে উচ্ছেদ করে ইজরাইলী বসতি স্থাপন করে চলেছে। সম্প্রতি গাজায় ফিলিস্তিনি বসতির উপর বিমান হামলা করে ৬৭ শিশুসহ আড়াই শতাধিক ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে ইসরায়েল। বিশ্বজুড়ে এই হামলা হত্যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে’’, বলছে জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়: বাংলাদেশের জনগণের মনোভাব দেখে সরকার একদিকে ইসরায়েলী বিমান হামলার নিন্দা করেছে অন্যদিকে পাসপোর্ট হতে ‘ইসরায়েল ব্যতীত বিশ্বের সকল দেশে’ বাক্য তুলে দিয়ে গাজায় ইসরায়েলী গণহত্যা ও যুদ্ধাপরাধের ঘটনায় নীরবতা পালন করেছে।

বিবৃতিতে সরকারের সাম্রাজ্যবাদী যুক্তরাষ্ট্র ও ভারতের তোষণ নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হবার জন্য দেশের গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল শক্তির প্রতি আহবান জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন