চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

পর্দার সুপারস্টার নয়, ভালো অভিনেত্রী হতে চাই: তানহা

‘ভোলা তো যায়না তারে’ সিনেমায় নিরবের সঙ্গে ২০১৬ সালে বড়পর্দায় যাত্রা শুরু তানহা তাসনিয়ার। পরে ‘ধুমকেতু’ (শাকিব খানের সঙ্গে), ‘ভালো থেকো’ (আরিফিন শুভর সঙ্গে) নামে আরও দুটি সিনেমায় তিনি কাজ করছেন। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে আরেক সিনেমা ‘বিয়ে আমি করবো না’ (বিপরীতে চিত্রনায়ক ইমন)। রুপালী পর্দায় তুলনামূলক কম কাজ থাকায় নাটকে নিয়মিত কাজ করছেন তাহনা।

আসন্ন ঈদে তার অভিনীত চারটি নাটক প্রচারের অপেক্ষায়। তানহা চাইছেন, একজন ভালো অভিনেত্রী হতে। চ্যানেল আই অনলাইনের সঙ্গে আলাপে তিনি তার ভাবনা জানিয়ে বলেন, পর্দার সুপারস্টার নয়, ভালো অভিনেত্রী হতে চাই। সেটা নাটক বা সিনেমা যে কোনো মাধ্যম থেকে হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, বড়পর্দার সুপারস্টার হতে হবে এই চিন্তা কখনই কাজ করে না। আমি নির্দিষ্ট কোনো গণ্ডির মধ্যে থাকতে চাই না। মানুষ যেন বলে ভালো অভিনেত্রী। অভিনয়ের মাধ্যমে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই।

তিনি বলেন, সিনেমা সেভাবে হচ্ছে না। অভিনয় জিনিসটা অনুশীলনের বিষয়। কাজ কমায় তাও করা যায় না। তাহলে কী বেকার বসে থাকবো? গত একবছরে ‘বিয়ে আমি করবো না’ নামে মাত্র একটি সিনেমা করেছি। আমার তো আরও কাজ করার কথা ছিল। তবে নাটকের আয়োজন সিনেমার না মতো থাকলেও কাজ করে বেশ কমফোর্ট ফিল করি।

নাটকে নিয়মিত কাজ করলেও সিনেমার ক্যারিয়ারে কোনো ক্ষতি হবে না বলে মনে করেন তানহা তাসনিয়া। তিনি বলেন, অনেক গুণী শিল্পীরাও দুই মাধ্যমে কাজ করে যাচ্ছেন। যেমন চঞ্চল চৌধুরী। পাশের দেশের শিল্পীরাও ওয়েবে কাজ করছেন আবার সিনেমাও কাজ করছেন।

তানহা মনে করেন, মিডিয়াতে তার কাজের সময়টা একেবারে ভুল সময়। তিনি বলেন, ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা দিনদিন খারাপ হচ্ছে। এদিক থেকে আনলাকি মনে হয়। কারণ, সিনেমার সুসময় আমরা পাইনি। সেটার নেগেটিভ ইমপ্যাক্ট পাচ্ছি। এরপরেও আশাবাদী যে সিনেমার সুদিন ফিরবে। ভালো অভিনেত্রী হতে গেলে অভিনয় শিখতে হবে, অনুশীলন করতে হবে তাই ছোটপর্দায় কাজ করছি।

তানহার লাস্ট বল, সরলের খোঁজে, ইগো প্রবলেম এই তিনটি নাটকের পরিচালক আদিবাসী মিজান। সহশিল্পীরা সালাহউদ্দিন লাভলু, আ খ ম হাসান। আরেকটি নাটক স্বরাজ দেবের পরিচালনায় ‘পরিমাণে তুমি’ যেখানে তার সহশিল্পী ইরফান সাজ্জাদ।

বিজ্ঞাপন