চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন না হলে নির্বাচন কমিশন ঘেরাও

আগামীকাল (বুধবার) দুপুর ১২টার মধ্যে ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন না করা হলে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভবন ঘেরাওয়ের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে শাহবাগে অবরোধকারী শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার বিকালে দেড়ঘণ্টা শাহবাগ মোড় অবরোধ করার পর সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে এ ঘোষণা দিয়ে অবরোধ স্থগিত করেন আন্দোলনকারীরা।

সেসময় আন্দোলনকারীদের প্রধান সমন্বয়ক ঢাকা বিশ্ববিদালয়ের জগন্নাথ হল সংসদের ভিপি উৎপল দাস বলেন, ‘যদি কালকে আমাদের বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা না হয়; তাহলে আমরা নির্বাচন কমিশন ভবন ঘেরাও করব।’

ইসির এমন সিদ্ধান্ত সংবিধানের পরিপন্থি দাবি করে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের পদত্যাগও দাবি করেন তিনি।

আগামী ৩০ জানুয়ারি সরস্বতী পূজার দিনে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে কয়েকটি দাবি তুলে ধরেন তারা।

দাবিগুলো হলো:
১. আগামী ৩০শে জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য ঢাকা উত্তর ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তারিখ আগামী ১৫ জানুয়ারী বেলা ১২টার মধ্যেই পরিবর্তন করতে হবে৷

২. সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের দায়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সংশ্লিষ্ট নির্বাচন কমিশনার ও কর্মকর্তাদের পদত্যাগ করতে হবে৷

৩. নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দাবি মানা না হলে আগামীকাল বেলা ১২টায় সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্য থেকে নির্বাচন কমিশন অভিমুখে পদযাত্রা ও নির্বাচন কমিশন ঘেরাও করা হবে।

গত ২২ ডিসেম্বর প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোট গ্রহণের জন্য ৩০ জানুয়ারি তারিখ নির্ধারণ করে তফসিল ঘোষণা করেন।

কিন্তু একই তারিখ সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সরস্বতী পূজা থাকায় হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন তার প্রতিবাদ করে নির্বাচন পেছানোর দাবি তোলে।

এরই মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অশোক কুমার ঘোষ সিটি নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন চেয়ে হাইকোর্টে একটি রিট করেন।

তবে সেই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত মঙ্গলবার রিটটি সরাসরি খারিজ করে দেন।

শেয়ার করুন: