চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নানা আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রে মহান বিজয় দিবস উদযাপন

নানা আয়োজনে যুক্তরাষ্ট্রে মহান বিজয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। করোনাকালে বিজয় দিবসের আয়োজন ছিলো সীমিত আকারে। বিভিন্ন সংগঠন কর্তৃক ভার্চুয়াল আয়োজনই ছিলো অধিকাংশ ক্ষেত্রে। আলোচনার মুল বিষয় ছিল বঙ্গবন্ধু , বাংলাদেশ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের জয়গান। ছিলো ভাস্কর্য নিয়ে মৌলবাদীদের আস্ফালনের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ।

বিজয় দিবস উদযাপনের আলোচনায় বক্তারা বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতা করে তারা রাষ্ট্রদ্রোহী। তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবি করেন তারা।

বিজ্ঞাপন

সেক্টর কমান্ডারস ফোরামসহ ৬টি সংগঠন আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ আহমদ। আলোচনা পরিচালনা করেন বাংলাদেশ প্রতিদিন ইউএসএ’র নির্বাহী সম্পাদক মুক্তিযাদ্ধা লাভলু আনসার।

ভার্চুয়াল আলোচনায় শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুন্নেসা। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে অর্জিত বাংলাদেশ আজ বিশ্ব দরবারে মর্যাদার আসনে আসীন। আর এই অর্জনের অগ্রভাগে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিজ্ঞাপন

এ সময় বক্তারা বলেন, স্বাধীনতা অর্জনের পর স্বাধীনতা বিরোধীরা ক্ষমতায় ছিলো। তাই নতুন প্রজন্ম ভুল ইতিহাস শিখেছে। সরকারকে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস তুলে ধরার ব্যবস্থা করতে হবে। আলোচনায় অংশ নেন একুশে পদকপ্রাপ্ত মুক্তিযাদ্ধা, গবেষক ডক্টর নূরুন্নবী, মুক্তিযাদ্ধা গোলাম মোস্তফা খান মিরাজ, মুক্তিযাদ্ধা রেজাউল বারী, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট মোরশেদ আলম, মুক্তিযাদ্ধা এমএ সালাম, মুক্তিযাদ্ধা মুনির হোসেন, নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধি স্বীকৃতি বডুয়া, শাহ ফারুক ও অন্যরা।

আলোচনার ফাঁকে ফাঁকে গান পরিবেশন করেন একুশে পদকপ্রাপ্ত শিল্পী সহীদ খান, জলি দাশ, শাহ মাহবুব, সবিতা খান ও শামীম খন্দকার। ভার্চুয়াল আলোচনার আয়োজন করে সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম ও মুক্তিযুদ্ধ ৭১, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাষ্ট্র বঙ্গবন্ধু পরিষদ, বাংলাদেশ লিবারেশন ওয়্যার ভেটারনস ১৯৭১ ইউএসএ, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন যুক্তরাষ্ট্র, মুক্তিযাদ্ধা সংহতি পরিষদ এবং একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে জ্যাকসন হাইটসে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামীলীগ। বক্তৃতা করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নূরুল আমিন বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক শিবলী সাদেকসহ অনেকে।

এছাড়া মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের বিভিন্ন সংগঠন নানা আঙ্গিকে দিবসটি উদযাপন করে।