চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নাট্যজন ঊষা গাঙ্গুলী আর নেই

‘আমি মুগ্ধ হয়েছিলাম রুদালি দেখে। সকলের অলক্ষ্যে চলে গেলেন বিশ্ব নাটকের ‘রুদালি’ ঊষা গাঙ্গুলী। আমার বিনীত শ্রদ্ধাজ্ঞাপন।’-বৃহস্পতিবার দুপুরে এভাবেই সোশাল মিডিয়ায় পশ্চিমবাংলার নাট্যজন ঊষা গাঙ্গুলীর মৃত্যুর খবর জানিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করছিলেন তারকা অভিনেতা প্রসেনজিৎ।

হ্যাঁ, পশ্চিমবাংলার গুণী নাট্য ব্যক্তিত্ব ঊষা গাঙ্গুলী আর নেই। বৃহস্পতিবার সকালে দক্ষিণ কলকাতার নিজের বাড়িতে সম্পূর্ণ অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায় তাকে। এরপর চিকিৎসককে ডাকা হলে তিনি এসে তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন।

বিজ্ঞাপন

কলকাতার সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, নিজ বাসায় একাই থাকতেন ঊষা গাঙ্গুলী। বৃহস্পতিবার সকালে গৃহপরিচারিকা এসে তাঁকে মাটিতে সম্পূর্ণ অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। এরপর পাড়ার লোকজন ডাকেন। চিকিৎসককেও ডাকা হয়। কিন্তু ততক্ষণে তিনি আর নেই। ঊষা গাঙ্গুলীর মৃত্যুতে নাট্য ও সংস্কৃতি জগতে শোকের ছায়া নেমে আসে।

১৯৪৫ সালে রাজস্থানের যোধপুর শহরে জন্মগ্রহণ করেন ঊষা। মাতৃভাষা হিন্দি হলেও বাংলা থিয়েটারে তিনি রেখেছেন অসামান্য কৃতিত্বের স্বাক্ষর। পরিচালক-অভিনেত্রী এবং সক্রিয় সমাজকর্মী হিসেবে তিনি পরিচিত ছিলেন। সত্তর ও আশির দশকে কলকাতা শহরে হিন্দি থিয়েটারের রূপায়ণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। ১৯৭৬-এ রঙ্গকর্মী গ্রুপ থিয়েটার প্রতিষ্ঠা করেন, সেই দলের প্রযোজনায় ‘মহাভোজ’, ‘রুদালি’, ‘কোর্ট মার্শাল’ এবং ‘অন্তর্যাত্রা’-র মতো নাটকগুলো পরিবেশিত হয়।