চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নাজিব রাজাকের বাড়িতে শত শত মিলিয়ন ডলারের জুয়েলারি!

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের বাড়ি থেকে ২৭৩ মিলিয়ন ইউএস ডলার মূল্যমানের জুয়েলারি সামগ্রী আটক করেছে মালয়েশিয়ার পুলিশ। আটকের তালিকায় বিপুল পরিমাণ গহনা, হাতব্যাগ ও নগদ টাকা রয়েছে।

নাজিব রাজাকের স্ত্রী রোসমাহ মানসুরের ১.৬ মিলিয়ন ইউএস ডলারের একটি সোনা ও ডায়মন্ডের গলার মালা, ১৪টি টায়রা এবং ২৭২টি হার্মিসের ব্যাগ উদ্ধার করা হয়েছে।

রাষ্ট্রীয় ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড ১ এমডিবি দুর্নীতির তদন্তের অংশ হিসেবে এসব সামগ্রী আটক করা হয়। ফান্ডটির বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার হিসাবহীন ছিলো। গত মে মাসে নির্বাচনে হঠাৎ হেরে যাওয়ার পরই তার বিরুদ্ধে এই তদন্ত শুরু হয়।

পুলিশ বলছে, মালয়েশিয়ার ইতিহাসে এটিই সবচেয়ে বড় আটকের ঘটনা। আটকের তালিকায় সবচেয়ে বেশি ছিলো গহনা, প্রায় ১২ হাজারটি। হাতব্যাগ পাওয়া গেছে ৫৬৭টি, যেগুলোর মূল্য ৩০ মিলিয়ন ইউএস ডলার। ৪২৩টি ঘড়ি ও ২৩৪ জোড়া সানগ্লাস।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ কমার্শিয়াল ক্রাইম ডিভিশনের প্রধান অমর সিং বলেন, এত বেশি জিনিস ছিলো যে আমরা ওখানে গুণতেই পারছিলাম না। কর্মকর্তাদের পাঁচ সপ্তাহ লেগেছে জিনিসগুলো ঠিকঠাক গুণতে ও তার দাম অনুমান করতে।

এর আগেও নিজের কেনাকাটার অভ্যাস ও ব্র্যান্ডের জিনিসের প্রতি ভালোবাসার কারণে আলোচিত ছিলেন রোসমাহ। তাকে ফিলিপাইনের ফার্স্ট লেডি ইমেলডা মার্কোসের সঙ্গেও তুলনা করা হচ্ছিলো।

দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায়ই নির্বাচনে হেরে যান নাজিব রাজাক। সেই ফান্ড থেকে ৭০০ মিলিয়ন ইউএস ডলার হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠে তার বিরুদ্ধে। যদিও সেই অভিযোগ তিনি অস্বীকার করেছেন।

নির্বাচনে হারার পরই তার ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয় এবং তাদের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন