চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ধান কেটে দিলে মজুরির সাথে মিলবে ত্রাণ

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে যারা কৃষকের ধান কেটে দিবে তাদের মজুরির সাথে ত্রাণ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলা প্রশাসন।

সেখানে ধান কাটার জন্য ইতোমধ্যে নিবন্ধন শুরু হয়েছে। এমন একটি উদ্যোগ নিয়ে ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাস দিয়েছেন সখীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসমাউল হুসনা লিজা।

বিজ্ঞাপন

এতে তিনি লিখেন, ‘ধান কাটলেই মিলবে ত্রাণ, সাথে মজুরি। সখীপুরে কর্মহীন হয়ে পড়া বিভিন্ন শ্রেণী পেশার শ্রমিকদের বোরো ধান কাটায় অংশগ্রহণে নিবন্ধন করার আহ্বান জানাচ্ছি।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে উপজেলা কৃষি অফিসের মাধ্যমে দলবদ্ধভাবে নিবন্ধনের কাজ শুরু করা হয়েছে। শনিবার পর্যন্ত নিবন্ধন চলবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসমাউল হুসনা লিজা।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, এতে অনেক সাড়া পেয়েছি। অনেকেই কাজ করার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ফেসবুকে।

তিনি বলেন, করোনার প্রভাবে এই উপজেলায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে অনেক শ্রমিক। তারা যদি ধান কাটার কাজ করেন তাহলে বাইরে থেকে শ্রমিকের প্রয়োজন হবে না। এতে করোনার সংক্রমণের ঝুঁকি কম হবে। নিবন্ধিত প্রত্যেক দলে ১০ থেকে ২০ জন শ্রমিক কাজ করবে। তারা কৃষকের ধান কাটার কাজ করবে। যারা ধান কাটার তালিকায় নাম অন্তর্ভূক্ত করবে তাদের মজুরির সঙ্গে ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, শ্রমিকের এ সংকট মেটাতে ব্যতিক্রমী এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এতে একদিকে কৃষকের ধান কাটা সহজ হবে অন্যদিকে কর্মহীন হয়ে পড়া বিভিন্ন শ্রেণির শ্রমিকরা মজুরির সঙ্গে বাড়তি খাদ্য সহায়তা পাবে।

উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা শ্রমিক নিবন্ধনের কাজ সমন্বয় করবেন। নিবন্ধিত দলের প্রত্যেকের ফোন নম্বর থাকবে। তাদের ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে ধান কাটার কাজ করা হবে।