চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের ঘটনা বাড়ায় এমজেএফের উদ্বেগ

দেশের বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন (এমজেএফ)।

দেশে সংঘটিত সকল ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের ঘটনার অবিলম্বে সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনী প্রক্রিয়ায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের দাবি জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রতিষ্ঠানটি জানায়, দেশের বিভিন্ন আবাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কিছু ছাত্রছাত্রীদের ওপর প্রতিষ্ঠানের শীর্ষকর্তা ও শিক্ষক কর্তৃক যৌন নিপীড়নের ঘটনা ঘটেছে।

বিজ্ঞাপন

রোববার এক বিবৃতিতে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম বলেন: সম্প্রতি ব্রাম্মণবাড়িয়ার নবীনগরে একটি মহিলা মাদ্রাসায় এক ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের পর হত্যা করা হয়েছে । যৌন নিপীড়নের সাথে জড়িত আবাসিক ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শীর্ষকর্তাদের গ্রেপ্তারের ব্যাপারে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাম্প্রতিক তৎপরতা অবশ্য প্রশংসার দাবি রাখে। এসব ঘটনার দায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় তথা মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড কোনোভাবেই এড়াতে পারে না।

সর্বশেষ চলতি মাসের ১৪ তারিখেও রাজধানীর বিমানবন্দর সংলগ্ন কাউলা এলাকার একটি জঙ্গলের আড়ালে ১৪ বছর বয়সী এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি।

ময়মনসিংহের কেন্দুয়াতে মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট এর বিরুদ্ধে ১১ বছরের মাদ্রসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করার অভিযোগে ইতোমধ্যে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মানুষের ফাউন্ডেশন বলছে, সমস্ত মামলার সুষ্ঠু তদন্ত করে অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। অন্যথায় ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের মতো জঘন্য ঘটনা অব্যাহত থাকতে পারে, যার দায় রাষ্ট্রের সবাইকে নিতে হবে।

বিজ্ঞাপন