চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দলে নতুন সাধারণ সম্পাদককে স্বাগত জানিয়ে রাখলেন কাদের

দলীয় সভাপতি না চাইলে আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনে নিজ থেকে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দেবেন না- বলে জানিয়েছেন দলটির বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

আগামী ২০ ও ২১ ডিসেম্বর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কাদের বলেন, ‘আগামী সম্মেলনে আমি প্রার্থীতা ঘোষণা করব না, নেত্রী থাকতে বললে থাকব, না হলে নয়। নতুন কেউ হলে তাকে স্বাগত জানাব।’

২০১৬ সালের ২৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দলের ২০তম ওই জাতীয় সম্মেলনে সভাপতি পদে শেখ হাসিনা টানা অষ্টমবারের মতো পুনর্নির্বাচিত হলেও সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে সরিয়ে তার জায়গায় সাধারণ সম্পাদক হন ওবায়দুল কাদের।

বিজ্ঞাপন

সচিবালয়ে সংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি কথা বলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. ফারজানা ইসলাম প্রসঙ্গেও।

জানান, অপরাধ করে কেউ ছাড় পাবে না, নেওয়া হবে সাংগঠনিক ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা। দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অব্যাহত রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী।

ওই ঘটনা নিয়ে তদন্ত চলছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে এ নিয়ে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। অপরাধী যত শক্তিশালীই হোক, প্রমাণ পেলে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে। ছাত্রলীগ নেতাদের টাকা দেয়ার বিষয়টি প্রমাণিত হলে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

ছাত্রলীগের মতো আওয়ামী লীগের অন্য সহযোগী সংগঠনগুলোতেও শুদ্ধি অভিযান শুরু হওয়ার খবর জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ছাত্রলীগের দুই নেতার পদ হারানোর ঘটনার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী পথ দেখিয়ে দিয়েছেন। এখন সহযোগী সংগঠনগুলোর উচিত সেই পথেই নিজেদের মধ্যেও শুদ্ধি অভিযান চালানো।’

Bellow Post-Green View