চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ত্রুটিপূর্ণ লাইনের জন্য সিরাজগঞ্জে ট্রেন দুর্ঘটনা

সিরাজগঞ্জে উল্লাপাড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে জেলা প্রশাসন কর্তৃক গঠিত ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি তাদের তদন্ত প্রতিবেদন জেলা প্রশাসকের নিকট জমা দিয়েছেন। তিদন্তে বলা হয়েছে ত্রুটিপূর্ণ লাইনের জন্য দুর্ঘটনাটি ঘটে।

বৃহস্পতিবার রাতে জেলা প্রশাসকের নিকট তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ ফিরোজ মাহমুদ ২৯ পাতার এই তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেন। প্রতিবেদনে দুর্ঘটনার কারণসহ কিছু সুপরিশও করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

জেলা প্রশাসক ড.ফারুক আহম্মদ জানান, দুর্ঘটনার দিন জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে ৫ সদস্যর একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয় এবং তাদের ৫ কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়।

বৃহস্পতিবার ৫ কার্যদিবসের শেষ দিনে তারা প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন। প্রতিবেদনটি মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনে প্রাথমিক ভাবে বলা হয়েছে, যেখানে দুর্ঘটনা ঘটেছে সেখানে রেল লাইনের স্টক রেল ও টাং রেল দুটি লক থাকার কথা ছিলো, কিন্তু সেখানে লক ছিলো না। দুটো লাইনের মাঝখানে গ্যাপ ছিলো। যে কারণে ট্রেনের ইঞ্জিন সেখানে এসে লাইনচ্যুত হয়েছে। সেই সাথে দুর্ঘটনার আরো কয়েকটি কারণ ও কিছু সুপারিশ প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে তবে সেগুলো মন্ত্রণালয়ে পাঠানোর পরে তারাই প্রকাশ করবে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ ১৪ নভেম্বর দুপুরে সিরাজগঞ্জ উল্লাপাড়া ষ্টেশন এলাকায় ঢাকা থেকে রংপুরগামী রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের ইজ্ঞিনসহ ৮টি বগি লাইন চ্যুত হয়।

এসময় ট্রেনের ইঞ্জিনসহ ৩ টি বগিতে আগুন লাগে। বন্ধ হয়ে যায় ঢাকার সাথে উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের ট্রেন যোগাযোগ।

ঈশ্বরদির পাকশী থেকে উদ্ধারকারি ট্রেন এসে উদ্ধার কাজ শুরু করলে ঘটনার ৬ ঘণ্টা পর উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের সাথে বিকল্প পথে ট্রেন যোগাযোগ স্বাভাবিক হয় এবং ৩০ ঘণ্টা পর পুরো ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

Bellow Post-Green View