চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

তারেক-জোবাইদার মামলায় রুল শুনানি ২৯ মে

বিজ্ঞাপন

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগের মামলার বৈধতা প্রশ্নে করা রিটের পর জারি করা রুলের শুনানি আগামী ২৯ মে।

গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রুল শুনানির জন্য বুধবার দিন ধার্য করেছিলেন। কিন্তু তারেক-জোবাইদার পক্ষের আইনজীবী সময় চেয়ে আবেদন করলে হাইকোর্ট এবিষয়ে শুনানির জন্য ২৯ মে দিন ধার্য করেন।

pap-punno

আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। আর তারেক-জোবাইদার পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

সম্পদের তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, জোবাইদা রহমানের ও তার মা সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে কাফরুল থানায় মামলা করে দুদক। পরের বছর তিনজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়।

Bkash May Banner

এরপর তারেক রহমান ও তার স্ত্রী হাইকোর্টে পৃথক রিট আবেদন করেন। সে রিটে জরুরি আইন ও এই মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করা হয়। এই রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করে মামলার কার্যক্রমে স্থগিতাদেশ দেন। সম্প্রতি হাইকোর্টের জারি করা সেই রিটের রুল শুনানির জন্য মঙ্গলবার হাইকোর্টের কার্যতালিকায় আসে। এরপর আদালত রুল শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন।

এই মামলা বাতিলের পৃথক আরেকটি আবেদন খারিজ করে হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে জোবাইদা রহমানের লিভ-টু-আপিল গত ১৩ এপ্রিল খারিজ করে দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

সর্বোচ্চ আদালতের ওই আদেশের ফলে জোবাইদা রহমানের বিরুদ্ধে মামলাটি চলতে বাধা নেই বলে জানান দুদক আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

তবে আপিল বিভাগের আদেশের পর জোবাইদা রহমানের আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, ‘আমরা ন্যায়বিচার পাইনি। এই মামলাটি করা হয়েছিল জরুরি অবস্থার সময় সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে। এ মামলার কোনো আইনগত ভিত্তি নেই।’

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View
Bkash May offer