চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

তামিমের ব্যতিক্রমী সেলিব্রেশন

মাত্র তিন দিন আগের ঘটনা। ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়াম। সফরকারী পাকিস্তানের সঙ্গে বিসিবি একাদশের ওয়ার্ম-আপ ম্যাচ। বিসিবি একাদশের হয়ে মাঠে নেমেছিলেন জাতীয় দলের ৫জন ক্রিকেটার। তাদের মধ্যে ছিলেন তামিম ইকবালও। ওপেনিংয়ে নেমে মাত্র ৯ রান করেই আউট তিনি। প্যাভিলিয়নে যখন ফিরছেন হাজার সাতেক দর্শকের ভুয়া, ভুয়া’ ধ্বনিতে উত্তপ্ত ওসমান আলি স্টেডিয়াম।

শুক্রবার পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে, ৩৪তম ওভারের পঞ্চম বল। তামিম ইকবালের ব্যক্তিগত রান তখন ৯৭। পুরো শেরে-বাংলায় তখন একটাই ধ্বনি তামিম, তামিম, তামিম। সাইদ আজমলকে ফ্লিক করে সেঞ্চুরিতে পৌছলেন বাংলাদেশী ওপেনার। প্রথমে আকাশের দিকে তাকালেন, তারপর গ্লাভসজোড়া খুলে রাখলেন মাটিতে। এরপর দুই হাত উপড়ে তুলে আঙ্গুলগুলো একটু ভিন্নভাবেই নাড়ালেন। দেখে যে কারও দুটো বিষয় মনে হতে পারে। মিটি মিটি বাতি জ্বলা নেভার মতো। অথবা, আমাকে নিয়ে বকবক অনেক হয়েছে এবার তোমরা থামো।

পোস্ট ম্যাচে তামিম না আসায় ব্যাতিক্রমি ওই সেলিব্রেশন সম্পর্কে তার কাছ থেকে কোন ব্যাখা পাওয়া যায়নি। তবে মুশফিকুর রহিম বলেছিলেন হতে পারে যে তাকে নিয়ে এত বেশি কথাবার্তা হচ্ছিলো সে হয়তো তারই প্রতিবাদ করেছে। তবে ‘আই লাইক দিস সেলিব্রেশন’ বলেছিলেন মুশফিক।

শনিবার দুপুরে অফিসিয়াল প্রেস কনফারেন্সে ক্যাপ্টেন মাশরাফি মর্তুজাকেও তামিমের সেলিব্রেশন নিয়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়েছে। তবে ম্যাশ শুনিয়েছেন ভিন্ন গল্প। বলেছেন এমন একটা কিছু তামিম করবেন এটা নিয়ে তাদের মধ্যে আলোচনাও হয়েছিলো। মাশরাফি বলেন, “আমি লিওনেল মেসির অনেক বড় ভক্ত। বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের বিপক্ষে উইকেট পাওয়ার পর মেসির মতো তা সেলিব্রেট করেছিলাম। তখন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দারুণ ভক্ত তামিম জানিয়েছিলো সেও ওরকম করতে চায়। আমার মনে হয় সেটিই করতে চেয়েছিলো হাত উঠিয়ে বাট করতে গিয়ে রোনালদোর মতো হয়ে গেছে। এটা আমার কথা কিন্তু তামিমের মনে অন্য কিছু থাকতেও পারে এবং সেটা সেই ভালো বলতে পারবে।”