চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ট্রাম্প বললেন, শিগগিরই ফিরছি আসল পরীক্ষা সামনে

শিগগিরই ফিরে আসবেন জানিয়ে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আগামী কয়েকদিন হবে আসল পরীক্ষা। 

শনিবার সন্ধ্যায় হাসপাতাল থেকে এক ভিডিওবার্তায় এসব কথা বলেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর ভিডিও বার্তার মাধ্যমে ট্রাম্প তার শারীরিক অবস্থা জানাচ্ছেন।

বিজ্ঞাপন

ভিডিওবার্তায় তাকে সেবা-শুশ্রূষা করা স্বাস্থ্যকর্মীদেরকেও ধন্যবাদ জানান তিনি।

ট্রাম্পের চিকিৎসক জানিয়েছেন, তিনি আগের চেয়ে এখন কিছুটা ভালো আছেন, করোনা শনাক্তের পর তার শারীরিক অবস্থার অগ্রগতি হয়েছে।

ডা. শন কনলি এক বিবৃতিতে বলেন, আমরা প্রেসিডেন্টের শারীরিক উন্নতি নিয়ে আশাবাদী। যদিও এখনও ঝুঁকি থেকে বেরিয়ে আসেনি।

গত শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ম্যারিল্যান্ড অঙ্গরাজ্যের ওয়াল্টার রিড সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়।

হাসপাতাল থেকেই টুইটারে এক ভিডিওবার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘যখন এখানে (হাসপাতালে) এসেছিলাম, তখন আমার শরীরটা খুব একটা ভালো ছিল না, এখন আগেরচেয়ে অনেক ভালো বোধ করছি। স্বাস্থ্যকর্মীরা আমাকে সুস্থ করে তোলার জন্য কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘মনে হচ্ছে খুব শিগগগিরই  ফিরে আসব। যেভাবে নির্বাচনী প্রচারকাজ শুরু করেছিলাম, সেটি শেষ করাই আমার লক্ষ্য।’

বিজ্ঞাপন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট তার সুস্থতা কামনা করে যারা শুভকামনা জানিয়েছেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

তার স্ত্রী মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পও করোনায় আক্রান্ত। তবে, ট্রাম্প জানিয়েছেন মেলানিয়া ‘বেশ ভালো আছেন’।

মেলানিয়ার বয়স ৭৪ বছর বয়সী মার্কিন প্রেসিডেন্টের চেয়ে কম হওয়ায় তার শারীরিক ঝুঁকি কম বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘আমার মনে হয়, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে আমরা জানতে পারব যে খুব ভালো কোনো ফল পেতে যাচ্ছি।’

এর আগে গত শুক্রবার জ্বরসহ নভেল করোনাভাইরাসের কিছু উপসর্গ’ দেখা দেওয়ার পর, ৭৪ বছর বয়সী ট্রাম্প টুইটে জানান যে তিনি ও তার স্ত্রী মেলানিয়া কোয়ারান্টিনে যাচ্ছেন।

এরপর করোনা পরীক্ষা করা হলে ট্রাম্প ও মেলানিয়া করোনা পজিটিভ শনাক্ত হন। টুইটবার্তায় ট্রাম্প নিজেই করোনায় আক্রান্তের কথা জানান।

ট্রাম্প টুইটে বলেন, ‘আমার ও মেলানিয়া ট্রাম্পের করোনা টেস্টের ফলাফল পজিটিভ এসেছে। আমরা শিগগিরই কোয়ারেন্টিনে থাকাসহ সেরে ওঠার প্রক্রিয়া শুরু করব। আমরা একসঙ্গে এই পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠব।’

এর আগে ঘনিষ্ঠ সহযোগী ও উপদেষ্টার করোনা পজিটিভ আসার পর ট্রাম্প ও তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প করোনা পরীক্ষা করান। ট্রাম্প নিজেই টুইট করে সে কথা জানিয়েছিলেন।

তবে এরই মধ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্তের পর ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচার প্রচারণার কাজ চলছেই, কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট কিছুটা দ্বিধায় আছেন নভেম্বরের নির্বাচনীর আগে ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা কেমন থাকে।