চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টিউলিপ-রুশনারা-রূপাসহ ব্রিটিশ পার্লামেন্টে রেকর্ড দুই শতাধিক নারী এমপি

ব্রিটেনের ইতিহাসে প্রথবারের মতো এবারের সাধারণ নির্বাচনে রেকর্ড পরিমান নারী সদস্য এমপি পদে জয়লাভ করেছেন। লেবার পার্টির হয়ে বঙ্গবন্ধুর নাতনী টিউলিপ সিদ্দিকের পাশাপাশি বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত রুশনারা আলী এবং রূপা হক সহ ২০১টি আসনে নারীরা জয়ী হয়েছে। ২০১৫ সালের নির্বাচনে এই বিজয়ীর সংখ্যা ছিল ১৯১।

এছাড়া এই নির্বাচনে বৃটেন প্রথমবারের মতো কোন শিখ নারী এমপির জয় উদযাপন করছে। কেননা এবার লেবার পার্টির হয়ে প্রথমবারের মতো শিখ নারী প্রীত কাউর গিল বার্মিংহাম এজাবস্টন আসনে জয়লাভ করেন।

বৃটেনের নির্বাচনের তৈরি এই ইতিহাস ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সাড়া ফেলেছে। প্রথমবারের মতো শিখ নারীসহ রেকর্ড সংখ্যক নারী এমপির জয়ে অনেকেই টুইটারে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

১৯১৮ সালে কনস্টান্স মার্কিয়েভিস প্রথমবারের মতো হাউজ অব কমন্সে প্রথম নারী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু তিনি নদার্ন আয়ারল্যান্ডের স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা সিন ফেইনে সদস্য হওয়ায় দায়িত্ব গ্রহণ করেননি।

বিজ্ঞাপন

পরবর্তীতে ১৯১৯ সালে ন্যান্সি অ্যাসটোন প্রথম নারী এমপি হিসেবে আসন গ্রহণ করেন।

শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ৩টায় ২০১৭ সালের সাধারণ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়। এরপর ফলাফলে দেখা যাচ্ছে যে, মোট ৬৫০ টি আসনের মধ্যে কনজারভেটিভ পার্টি পেয়েছে ৩১৮টি আসন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী দল লেবার পার্টি পেয়েছে ২৬১ টি আসন। এসএনপি ৩৫ আসন। এলডি (লিব ডেম) পেয়েছে ১২টি আসন। অন্যান্য দল পেয়েছে ২৩ টি আসন। একটি আসনের ভোটগণনা এখনও শেষ হয়নি।

চূড়ান্ত ফলাফলে দেখা যাচ্ছে যে কোন দলই এককভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারেনি। কোনো দল সরকার গঠন করতে চাইলে এককভাবে ৩২৬ আসন পেতে হয়। তাহলে মেলে সংখ্যাগরিষ্ঠতার স্বীকৃতি। ফলে এখন পার্লামেন্টের অবস্থা হবে ‘ঝুলন্ত’।

শেয়ার করুন: