চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

টাঙ্গাইলে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে অবরুদ্ধ ক্যামেরাপার্সন

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে রোগীদের দুর্ভোগ ও অনিয়মের তথ্যচিত্র সংগ্রহ করতে গিয়ে ডিবিসি নিউজ এর টাঙ্গাইলের ক্যামেরাপার্সন আশিকুর রহমান শহিদকে প্রায় ১ ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।

পরে সংবাদ পেয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের হস্তক্ষেপে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সাংবাদিকদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার সকালে নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

আশিকুর রহমান শহিদ জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তথ্য সংগ্রহ করতে তিনি নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান। প্রথমে তিনি হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের কক্ষ ও পরে চিকিৎসকদের কক্ষে গিয়ে কাউকে না পেয়ে সেখানকার ভিডিও ধারণ করতে থাকেন।

বিজ্ঞাপন

এসময় ওই হাসপাতালের চিকিৎসক মো. শরিফুল ইসলাম ঘটনাস্থলে এসে ভিডিও ধারণে বাধা দেন এবং নানাভাবে তাকে নাজেহাল করতে থাকেন। এক পর্যায়ে তাকে তত্ত্বাবধায়কের কক্ষে নিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখেন এবং তার উপর মানসিকভাবে চাপ সৃষ্টি করতে থাকেন।

পরে এ ঘটনা ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় সাংবাদিকরা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে আশিকুর রহমানকে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় এক সাংবাদিক জানান, আশিক তার পরিচয় দেয়ার পরও পেশাগত কাজে সহযোগিতা না করে উল্টো ১ ঘণ্টারও বেশি সময় অবরুদ্ধ করে তাকে নানাভাবে নাজেহাল করেছেন।

নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. রোকনুজ্জামান ক্যামেরাপার্সনকে অবরুদ্ধ করার বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, তাকে একটি কক্ষে নিয়ে শুধুমাত্র তার পরিচয়পত্র চাওয়া হয়েছে।

টাঙ্গাইল প্রেস ক্লাবের সভাপতি জাফর আহমেদসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তারা অবিলম্বে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়াসহ হাসপাতালের স্বাভাবিক পরিবেশের দাবি জানান।