চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করল বাংলাদেশের মেয়েরা

দুই বছর পর ওয়ানডে ক্রিকেটে ফিরে দুর্দান্ত সাফল্য পেল বাংলাদেশের মেয়েরা। জিম্বাবুয়ে সফরে স্বাগতিকদের হোয়াইটওয়াশ (৩-০) করেছে টিম টাইগ্রেস। তিন ম্যাচ সিরিজে এই প্রথম কোনো দলকে ধবলধোলাই করলেন রুমানা-সালমারা।

বুলাওয়েতে সোমবার সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৭ উইকেটে হারায় বাংলাদেশ। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে স্বাগতিকরা গুটিয়ে যায় ৭২ রানে। সহজ লক্ষ্য নিগার সুলতানা জ্যোতির দল তাড়া করে ১৮.২ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে।

ওপেনার মুর্শিদা খাতুন হ্যাপি ৩৯ রানে অপরাজিত থাকেন। এ বাঁহাতির ৪৮ বলের ইনিংসে ছিল পাঁচটি চারের মার। আগের ম্যাচে ৫১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন দেশসেরা ওপেনার। আরেক ওপেনার নুজহান তাসনিয়া ১০, অধিনায়ক নিগার ১২ ও সোবহানা মোস্তারি ১ রান করে আউট হন।

টস জিতে ব্যাট করতে নামা জিম্বাবুয়ে ব্যাটারদের উইকেটে আসা-যাওয়ার মধ্যে ব্যতিক্রম ছিলেন শের্ন মেয়ার্স। স্বাগতিক দেশের ওপেনার ৩৯ রানের ইনিংস খেলে আউট হন নবম ব্যাটার হিসেবে। বাকি কেউই ছুঁতে পারেননি দুই অঙ্ক। ছয় ব্যাটার আউট হন রানের খাতা খোলার আগেই।

জিম্বাবুয়ে অলআউট হয় ২৭.২ ওভারে। টাইগ্রেস বাঁহাতি স্পিনার নাহিদা আক্তার নেন ৫ উইকেট। রুমানা আহমেদ ও ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণা দুটি করে উইকেট নেন।

বিজ্ঞাপন

এক স্পেলে টানা দশ ওভার শেষ করেন নাহিদা। চার মেডেনে খরচ করেন ২১ রান। ওয়ানডেতে বাংলাদেশের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ৫ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়লেন নাহিদা।

৫ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের জয়ের পথ খুব সহজ করে দেন নাহিদা

 

এর আগে ২০১৮ সালে কক্সবাজারে পাকিস্তানের বিপক্ষে ২০ রানে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন অফস্পিনার খাদিজাতুল কুবরা। সেটি ৫০ ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের সেরা বোলিং ফিগার।

দুই  ম্যাচ পর চোট কাটিয়ে একাদশে ফেরেন নতুন অধিনায়ক নিগার সুলতানা। আন্তর্জাতিক অভিষেক হয় বাঁহাতি পেসার ফারিহার। জাহানারা আলম ও শারমিন সুলতানাকে রাখা হয় বিশ্রামে।

জিম্বাবুয়েতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ শেষে এবার বড় মিশন বাংলাদেশের সামনে। সেটি ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে অংশগ্রহণ। ২১ নভেম্বর হারারেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে সামনের চ্যালেঞ্জ। বাংলাদশের গ্রুপে রয়েছে থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র ও স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে।

বিজ্ঞাপন