চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চীনে লিঙ্গ বৈষম্য শিক্ষা দেয়ায় স্কুল বন্ধ ঘোষণা

Nagod
Bkash July

‘নারীরা পুরুষের অনুগত এবং অধীন হতে হবে’ এমন শিক্ষা দেয়ার কারণে একটি ইনস্টিটিউট বন্ধ করে দিয়েছে চীনা কর্তৃপক্ষ। চীনা শিক্ষা ব্যুরোর পক্ষ থেকে এই ইনস্টিটিউটের বিরুদ্ধে ঐতিহ্যগত গুণাবলী হিসেবে সমাজতান্ত্রিক মূল মানগুলি লঙ্ঘিত করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

Reneta June

অনলাইনে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায় লিঙ্গ সমতার বিরুদ্ধে লেকচার দেয়া হচ্ছে ওই স্কুলে। সেখানে উপদেশ দেয়া হচ্ছে, নারীদেরকে যখন শারীরিক ভাবে আঘাত করা হবে তখনও যেন নারীরা পুরুষদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের প্রতিরোধ না করে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি ধারন করা হয় ফুসান স্কুল থেকে। চীনের একটি নিউজ সাইট এই ভিডিওটি পোস্ট করলে তা অল্প সময়ে ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেট দুনিয়ায়। সেখানে নারীদের ক্যারিয়ার পিছনে ছুটতে নিরুৎসাহিত করে লেকচার দিতে দেখা যায়। নারীদের সমাজের নীচের দিকে অবস্থান করতে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। নারীদের কাজ শুধু বাবা, স্বামী, সন্তানের প্রতি অনুগত থাকা।

আরেকটি প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা দিতে দেখা যায়, স্বামী যদি নির্যাতন করে তাহলেও নারীদের তালাক দেয়া যাবে না। এমনকি ওই স্কুলের শিক্ষক বলছেন, একজন নারী যদি তিনজনের বেশি পুরুষের সঙ্গে যৌন মিলন করে তাহলে সে বিষাক্ত হয়ে যায় এবং তাকে হত্যা করা উচিৎ। তোমার স্বামী যাই জিজ্ঞেস করুক না কেন তোমার উত্তর হবে ‘হ্যাঁ, ঠিক আছে।’ একজন শিক্ষককে শ্রেণিকক্ষে এই শিক্ষাগুলো দিতে দেখা যায় ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে।

সম্প্রতি চীনে এই ধরনের ইনস্টিটিউট বৃ্দ্ধি পেতে শুরু করেছে বলে জানিয়েছে শিক্ষা ব্যুরো। এই ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আরো আছে কি না তা খতিয়ে দেখার চেষ্টা করা হচ্ছে। সামাজিক মানদণ্ডগুলোর পরিপন্থি যেসব প্রতিষ্ঠান বা  স্কুলগুলো এই ধরনের শিক্ষা দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানায় এই প্রতিষ্ঠান।

BSH
Bellow Post-Green View