চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চালু হলো চাঁপাইনবাবগঞ্জ-রাজশাহী–ঢাকা ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’

রেলযোগে উত্তরের কৃষিপণ্য পরিবহনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ- রাজশাহী–ঢাকা রুটে পণ্যবাহী ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’ নামে নতুন একজোড়া ট্রেন চালু করা হয়েছে।  প্রতিদিন যাতায়াত করবে বিশেষ এই ট্রেন।

শুক্রবার বিকেলে রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশনে এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজামান লিটন।

বিজ্ঞাপন

এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহীর জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক ও পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জিএম মিহির কান্তি গুহ।

বিজ্ঞাপন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ- রাজশাহী–ঢাকা রুটের পণ্যবাহী নতুন ট্রেন প্রতিদিন যাতায়াত করবে। এর ফলে রাজশাহী থেকে ট্রেনে আমসহ রেলযোগে উত্তরের কৃষিপণ্য পরিবহনের দুয়ার খুললো।

বিজ্ঞাপন

আজ উদ্বোধনী দিনে ১ হাজার ৬শ কেজি আম ও কয়েক কার্টুন লিচু নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন’টি ছেড়ে যায়। এই ট্রেনের ৫টি বগিতে প্রায় ২ লাখ কেজি কৃষিপণ্য পরিবহন করা যাবে।

এর আগে বিকেল চারটায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে বিশেষ ব্যবস্থায় রেল যোগে ঢাকাসহ অন্যান্য জেলায় আম পরিবহনের জন্য বিশেষ ম্যাংগো ট্রেনের উদ্বোধন করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম জেসী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি মো. আব্দুল ওদুদ, জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূরুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ইকবাল হোছাইন, পশ্চিম রেলের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা ফুয়াদ হোসেন আনন্দ, চেম্বারের সভাপতি আলহাজ্ব মো. এরফান আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মো. রুহুল আমিন, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ জিয়াউর রহমান পিপিএম, জেলা আওয়ামীলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ, রেলের কর্মকতারাসহ স্থানীয় আমচাষি ও ব্যবসায়ীরা।

রেল কর্তৃপক্ষ জানায়, স্পেশাল ম্যাংগো ট্রেনটি সপ্তাহে প্রতিদিন বিকেল ৪টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে যাবে। মোট ছয়টি ওয়াগন নিয়ে আম, শাক-সবজিসহ যে কোন ধরণের পার্সেল মালামাল এতে বহন করা যাবে। প্রতি কেজি আমের ভাড়া হিসেবে ১ টাকা ৩১ পয়সা নির্ধারণ করা হয়। চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে যাওয়া ট্রেনটি আমনুরা বাইপাস, কাঁকনহাট, রাজশাহী, সারদাহ, আড়ানী ও আব্দুলপুর বাইপাস স্টেশনে থেকে আম নিয়ে যাবে ঢাকার উদ্দেশ্যে। করোনা পরিস্থিতিতে আমচাষি, ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন সংগঠনের দাবির প্রেক্ষিতে সরকার চাঁপাইনবাবগঞ্জ-রাজশাহী থেকে আম পরিবহনের জন্যই মূলতঃ এই উদ্যোগ গ্রহণ করেন।