চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

গার্দিওলার যেজন্য আরও বেশি করে দরকার কেনকে

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, চেলসি, লিভারপুল, লেস্টার সিটি, এমনকি ৭৪ বছর পর প্রিমিয়ার লিগে আসা ব্রেন্টফোর্ডও জয়ে নতুন মৌসুম শুরু করেছে। টটেনহ্যামের কাছে হেরে শুরুটা বাজে হয়েছে কেবল বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটির।

টটেনহ্যাম হটস্পারের মাঠে রোববার রাতে ১-০ গোলে হেরে বসেছে ম্যানচেস্টার সিটি। পেপ গার্দিওলার হাসি কেড়ে নেন ৫৫ মিনিটে প্রতিপক্ষের জাল খুঁজে নেয়া সন-হিউন মিন।

অথচ ম্যাচ শেষে দেখা যাচ্ছে, বল দখলের লড়াইয়ে সিটি যেখানে ৬৬ শতাংশ, হটস্পাররা সবে ৩৪ শতাংশ বল দখলে রেখেই জয় তুলে নিয়েছে। লক্ষ্যে শট, লক্ষ্যের কাছাকাছি শট, ব্লক শট, সবদিকেই আধিপত্য ছিল সিটিজেনদের। কেবল জয়টাই তুলতে পারেনি তারা।

কারণ? সাদা চোখে তাদের কাজের কাজ গোলটা করতে পারেনি কেউ। কোচ গার্দিওলা যে একজন সলিড স্ট্রাইকারের জন্য তোড়জোড় করছেন, সেটির অভাব যেন আরও বেশি করে চোখে লাগল এই ম্যাচে। তাতে আরও বেশি করেই দরকার মনে হচ্ছে হ্যারি কেনকে।

হ্যারি কেন-ই কেন? ম্যানসিটি যেমন দেখছে তাদের একজন গোলস্কোরার দরকার, টটেনহ্যাম তেমন দেখিয়ে দিয়েছে হ্যারি কেনকে ছাড়াও চলবে তাদের! আর হ্যারি কেন গো ধরে বসে আছেন টটেনহ্যাম ছাড়বেন বলে। রোববার রাতের ম্যাচে তিনি মাঠে নামেননি স্পারদের হয়ে।

বিজ্ঞাপন

গত মৌসুমে একজন স্ট্রাইকার ছাড়াই শিরোপা জিতেছে ম্যানসিটি। সার্জিও আগুয়েরো চোট নিয়ে বসে থেকেছেন। এবার সেই আর্জেন্টাইনও নেই, চলে গেছেন বার্সেলোনায়।

এদিকে সিটির হারের আগের চব্বিশ ঘণ্টায় লিভারপুল, ম্যানইউ, চেলসি দেখিয়েছে তাদের গোলস্কোরিং ক্ষমতা। এ মৌসুমে গার্দিওলার জন্য যে একজন গোলস্কোরার খুবই জরুরি সেটা তিনিও বলে চলেছেন অনবরত।

কেন নিজে আসতে চান, সিটির দরকার, দরকষাকষি চলছে, দুয়ে দুয়ে মিলে গেলে ইংলিশ তারকাকে ইতিহাদে দেখা যাবে হয়ত। কিন্তু সেজন্য ম্যানসিটির হাতে সময় আছে কেবল সেপ্টেম্বরের শুরু পর্যন্ত। তারপর বন্ধ হয়ে যাবে গ্রীষ্মকালীন দলবদলের সুযোগ।

হটস্পারদের মাঠে সিটিজেনরা যেভাবে সুযোগ তৈরি করেছে, প্রথম ১০ মিনিটের মধ্যেই ৩-০তে এগিয়ে যেতে পারত তারা, যদি সুযোগগুলো কাজে লাগাতে পারত। সুযোগ কাজে লাগানোর জন্যই হ্যারি কেনের মতো একজন গোলস্কোরারকে জরুরি ভিত্তিতে দরকার গার্দিওলার। এই দলবদলে কেবল কেনের অপশনটাই হাতে আছে ম্যানসিটির।

গার্দিওলা অবশ্য শিষ্যদের পাশেই থাকছেন, ‘এরা সকলে সেই খেলোয়াড়ই, যারা গত মৌসুমে অনেক গোল করেছে। কখনও কখনও এমন হয়। আমরা সুযোগ তৈরি করার জন্য যথেষ্ট করেছি, এবং আমরা সামনে গোলও করব।’

বিজ্ঞাপন