চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন তথ্যমন্ত্রী

গণমাধ্যম, সংবাদ, সাংবাদিকতা, জনসংযোগ, ব্রান্ডিং, বিজ্ঞাপন বাজার ও গণমাধ্যম ডিরেক্টরি নিয়ে ১৭৪ পৃষ্ঠার তথ্যভিত্তিক সংকলন ‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি।

আজ ১৫ মার্চ মঙ্গলবার বিকালে অমর একুশে বইমেলায় গ্রন্থ উন্মোচন মঞ্চে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন তিনি । ‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইয়ের লেখক প্রখ্যাত কৃষিবিদ, ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব সালেহ মোহাম্মদ রশীদ অলক। মোড়ক উন্মোচনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি নির্মল রঞ্জন গুহ, সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু।

Reneta June

মোড়ক উন্মোচন শেষে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেন, আমি বিশ্বাস করি গণমাধ্যমে হাতেখড়ি বইটি সাংবাদিকতার জন্য অনেক বেশি সহায়ক হবে,এর মাধ্যমে গণমাধ্যমের অনেক তথ্য পাওয়া যাবে, এটি নতুনদের প্রেরণা দিবে এবং এর মাধ্যমে অনেক নতুন নতুন তথ্য আমরা জানতে পারবো।

বিজ্ঞাপন

তথ্যমন্ত্রী বলেন, “বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে এই বইমেলা আমাদের জন্য তাৎপর্যপূর্ণ। এই বইমেলাকে কেন্দ্র করে তরুণদের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস জানার আগ্রহ হোক, তরুণরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করুক, তাই হবে বইমেলার সফলতা।”

সাম্প্রতিক দ্রব্যমূল্যের বৃদ্ধি নিয়ে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, “রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে অন্যান্য সব দেশেই ৬০ শতাংশ দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। আমাদের দেশে তো সে তুলনায় কমই বেড়েছে। যেসব অসাধু ব্যবসায়ীদের কারণে দেশে দ্রব্যমূল্য বেড়েছে, সরকার তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।”

বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, বর্তমান সরকারের সময়ে বিদেশে অনেক টাকা পাচার হয়েছে। সে বিষয়ে সাংবাদিকরা মন্তব্য জানতে চাইলে হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি নেতারা এখন নানা কথা বলছেন। অথচ তাদের নেতা তারেক জিয়া ও খালেদা জিয়া মিলে বিদেশে টাকা পাচার করতো। তাদের মুখে টাকা পাচারের কথা মানায় না। তাদের সময়ে দেশ দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলো। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় এসে সেই অবস্থা থেকে দেশের ভাবমূর্তি রক্ষার জন্য অপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন। আমাদের প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে উনয়নের মহাসড়কে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি বলেন, গণমাধ্যমে হাতেখড়ি বইটি আমি এটুকু সময়ে যা পড়ে দেখেছি, অলক যথেষ্ট সুন্দর লিখেছে। এটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বই। আমি আশা রাখি আগামী বই মেলায় অলক আরো বেশি বই আমাদের জন্য নিয়ে আসবে । আমি তার সফলতা কামনা করি।

বইটির লেখক বলেন, গণমাধ্যম আমাদের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে। সাংবাদিকতা, জনসংযোগ বা মিডিয়া মার্কেটিং পোশায় কেউ আসতে চাইলে তাকে জানতে হয় সেই সম্পর্কিত প্রাথমিক নানা তথ্য ও খুটিনাটি অনেক বিষয়, যা অনেকে চাইলেও সহজে জানতে পারেনা। ব্যবসায়ীরা গণমাধ্যমকে ব্যবহার করেন নিজের পণ্য, প্রতিষ্ঠানকে বা নিজেকে ব্র্যান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে। এর জন্য গণমাধ্যম, জনসংযোগ, ব্রান্ডিং ও বিজ্ঞাপন নিয়ে তাদের জানতে হয়। গণমাধ্যম সম্পর্কে কিছু প্রাথমিক তথ্যও সবার জানা প্রয়োজন। সেই লক্ষ্যেই গণমাধ্যম স্বাক্ষরতার (মিডিয়া লিটারেসি) জন্য এই বই লেখার প্রয়াস। বাংলাদেশের মিডিয়া সংক্রান্ত প্রাথমিক তথ্যের এই সংকলন বাস্তব জীবনে গণমাধ্যমের নানাবিধ ব্যবহারে হাতেখড়িতে সহায়ক হবে।

‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইটিতে গণমাধ্যম, গণমাধ্যমের ধরণ, বাংলাদেশের শীর্ষ বাংলা ও ইংরেজি দৈনিক পত্রিকা, সকল টেলিভিশন চ্যানেল, এফএম রেডিও, শীর্ষ অনলাইন নিউজপোর্টালের মালিকের নাম ও পরিচয় রয়েছে। বইটিতে বাংলাদেশের সকল শীর্ষ গণমাধ্যমের ঠিকানা, প্রতিষ্ঠানভিত্তিক শীর্ষ কর্মকর্তাদের মোবাইল নম্বর, সকল শীর্ষ গণমাধ্যমের প্রতিষ্ঠাবার্ষীকি, নতুন দৈনিক পত্রিকা, অনলাইন নিউজপোর্টাল, আইপি টিভির নিবন্ধন প্রক্রিয়া ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের বিবরণ , সাংবাদিকের কাজ, যোগ্যতা, ক্যারিয়ার, ক্ষেত্রসমূহ, আয়, সাংবাদিকতায় পড়াশুনা ও বিভিন্ন কোর্স, নিউজ প্রেজেন্টার, আরজে পেশা, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধিনস্থ দপ্তর, ওয়েজবোর্ড, বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট, গণমাধ্যম সংশ্লিষ্ট সংগঠন, বিট ভিত্তিক সংগঠনের প্রাথমিক তথ্য আছে।

এ সবের পাশাপাশি বইটিতে সংবাদ কি, লেখার নিয়ম, সংবাদের উল্টো পিরামিড কাঠামো, টিভি সংবাদ তৈরির কাঠামো, ফিচার, সম্প্রচার সাংবাদিকতার পরিভাষা, বিট রিপোর্টিং, সংবাদপত্রের বিভিন্ন বিভাগ, কর্মরতদের পদবীসমূহ, জনসংযোগ, সংবাদ বিজ্ঞপ্তি লেখা ও প্রেরণের মৌলিক বিষয়, সংবাদ সম্মেলন, খবরের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা প্রদানের পদ্ধতি, মানহানি কি, মানহানি হলে আইনের আশ্রয়, ফৌজদারি আদালতে মানহানির মামলা, প্রেস কাউন্সিল-এ মামলা, চিন্তা, বিবেক ও বাক-স্বাধীনতা নিয়ে সংবিধানের ৩৯ তম অনুচ্ছেদের বিবরণ আছে।

বইটির লেখক কৃষিবিদ সালেহ মোহাম্মদ রশীদ অলক শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৩ সালে বিএসসি অনার্স এবং ২০১৫ সালের মাস্টার্স শেষ করে ফ্রিল্যান্স সাংবাদিকতা ও ব্র্যান্ডিং এ মনোনিবেশ করেন। ১৯৯২ সালের ৮ ডিসেম্বর ঢাকার এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম নেওয়া এই কৃষিবিদ বর্তমানে “ব্রান্ডমার্ক এডভার্টাইজিং এন্ড পাবলিক রিলেশন” এর স্বত্বাধিকারী। তিনি ফ্রীলান্স সাংবাদিক ও মিডিয়া কনসালটেন্ট হিসেবেও কাজ করছেন। ‘গণমাধ্যমে হাতেখড়ি’ বইটি প্রকাশিত হচ্ছে আল-হামরা প্রকাশনী থেকে। বইটি বইমেলায় ৫৭৯ নম্বর স্টলে পাওয়া যাবে।