চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

খালেদা জিয়ার চার মামলার কার্যক্রম স্থগিতই থাকছে

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দারুসসালাম ও যাত্রাবাড়ী থানায় করা চার মামলার কার্যক্রম স্থগিতই থাকছে।

এই চার মামলায় হাইকোর্টের দেয়া স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের শুনানি নিয়ে এসব মামলা বাতিল প্রশ্নে হাইকোর্টের জারি করা রুল নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

সোমবার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন পাচ বিচারপতির ভার্চুয়াল আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেয়। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। আর খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন ও বদরুদ্দোজা বাদল।

আজকের এই আদেশের ফলে চার মামলার কার্যক্রম স্থগিতই থাকছে বলে জানিয়েছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা।

২০১৪ সালে বিএনপিসহ ২০ দলের ডাকা হরতাল-অবরোধের সময় বাসে আগুন, ভাঙচুর, ককটেল বিস্ফোরণ, মানুষ হত্যাসহ বিভিন্ন সহিংসতার ঘটনায় ২০১৫ সালে ঢাকায় করা ১০টি মামলায় অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। এসব মামলায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করা হয়। এর মধ্যে যাত্রাবাড়ী থানায় ২টি ও দারুস সালাম থানায় ৮টি মামলা রয়েছে। এই ১০টি মামলার মধ্যে ৮টি ঢাকার বিশেষ আদালতে, অন্য ২টি মহানগর দায়রা জজ আদালতে অভিযোগ গঠন বিষয়ে শুনানি পর্যায়ে রয়েছে। আর এই ১০টি মামলার মধ্যে দারুসসালাম থানার ৩টি ও যাত্রাবাড়ী থানার ১টি সহিংসতার মামলায় অভিযোগপত্র আমলে নেওয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ২০১৭ সালে আবেদন করেন খালেদা জিয়া। সে আবেদনের শুনানির পর ওই বছরের ১৩ এপ্রিল হাইকোর্ট চার মামলার কার্যক্রম স্থগিতের পাশাপাশি রুল জারি করে। রুলে, এই চার মামলায় অভিযোগ আমলে নেওয়ার আদেশ কেন বাতিল করা হবে না- তা জানতে চাওয়া হয়। এরপর হাইকোর্টর এই আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। সে আবেদনের শুনানি নিয়ে সর্বোচ্চ আদালত আজ আদেশ দিয়েছেন।