চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ক্যানসার আক্রান্ত সঞ্জয়: প্রথম কেমোথেরাপি সফল

ফুসফুসের ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে গত ১৮ আগস্ট মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সঞ্জয় দত্ত। সম্প্রতি যেখানে তার প্রথম পর্যায়ের কেমোথেরাপি সফল হয়েছে।

অভিনেতার শারীরিক অবস্থা ভালো থাকলে আগামি সপ্তাহের মঙ্গল অথবা বুধবারে তার দ্বিতীয় পর্যায়ের কেমোথেরাপি শুরু করা হবে।

বিজ্ঞাপন

পারিবারিকসূত্রের বরাতে ভারতীয় মিডিয়া জানিয়েছে, চিকিৎসকদের একটি দল নিয়মিত সঞ্জয়ের স্বাস্থ্যের দিকে খেয়াল রাখছেন। মোট কতগুলি কেমোথেরপি নিতে হবে সঞ্জয় দত্তকে, সেটা এখনো বলা যাচ্ছেনা।

বিজ্ঞাপন

গেল ৮ আগস্ট হঠাৎ‌ করে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা দেখা দেয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল সঞ্জয় দত্তকে। সেসময় তাকে মুম্বাইয়ের লীলাবতী হাসপাতালের আইসিইউতেও ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

এরপর ১১ আগস্ট ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো হাসপাতাল সূত্রে খবর প্রকাশ করে যে, ৬১ বছর বয়সী এই অভিনেতার ফুসফুসে ক্যানসার ধরা পড়েছে। সেদিন চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন স্টেজ থ্রি-তে ধরা পড়েছে এই অভিনেতার ক্যানসার। কিন্তু পরবর্তিতে চিকিৎসকরা বলেছেন, ‘তৃতীয় নয়, চতুর্থ পর্যায়ে রয়েছে তার ক্যানসার’।

বিশেষজ্ঞদের মতে যা খুবই ক্রিটিক্যাল। কেননা চতুর্থ পর্যায়ের ফুসফুসের ক্যানসারের ক্ষেত্রে বাঁচার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ। গত পাঁচ বছরের হিসেব দেখলে, মাত্র ১০ শতাংশ রোগীই এই পর্যায়ের ক্যানসারকে হার মানাতে পেরেছেন।

এদিকে ক্যানসারের কথা জানতে পেরেই তড়িঘড়ি চিকিৎসার জন্য প্রথমে আমেরিকার হাসপাতালে যাওয়ার কথা ভেবেছিলেন সঞ্জয় দত্ত। কিন্তু মুম্বাই হামলায় সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় আমেরিকার দূতাবাস তাকে প্রথমে আমেরিকার ভিসা দিতে রাজি না হলেও পরবর্তিতে পাঁচ বছরের জন্য চিকিৎসা ভিসা দেয়। কিন্তু বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কারণে বিদেশে গিয়েও চিকিৎসা করানোটা কঠিন হয়ে উঠেছে। তাই সেই সিদ্ধান্ত বাতিল করে আপাতত কোকিলাবেন হাসপাতালেই চিকিৎসা করাচ্ছেন তিনি।