চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের হুঁশিয়ারি

নরেন্দ্র মোদির বিজেপি সরকার ভারতীয় সংসদে জম্মু ও কাশ্মীর বিষয়ে সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা অযৌক্তিক দাবি করে ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সব ধরণের পদক্ষেপ নেয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে পাকিস্তান।

সোমবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ হুঁশিয়ারি দেয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘‘জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সরকারের নেয়া ওই পদক্ষেপকে পাকিস্তান নিন্দা জানিয়ে প্রত্যাখান করে। ওই অঞ্চল আন্তর্জাতিকভাবেই বিতর্কিত অঞ্চল হিসেবে পরিচিত। তাই ওই অঞ্চল নিয়ে ভারত সরকারের একতরফা সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া হবে না। জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের দেয়া রেজুলেশনের কথা মনে করিয়ে দিয়ে বলা হয় ভারত সরকারের ওই সিদ্ধান্ত কাশ্মীর ও পাকিস্তানের জনগণ কখনো গ্রহণ করবে না।’

‘আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিতর্কিত অঞ্চলের অংশীদার হিসেবে পাকিস্তান ভারতের ওই অযৌক্তিক সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য সব ধরণের পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।’

বিজ্ঞাপন

এদিকে কাশ্মীর বিষয়ক সংসদীয় কমিটির এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে পার্লামেন্ট ভবনে।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরাশী এক টেলিভিশন সাক্ষাতকারে বলেন: ভারতের বিজেপি পার্টি যদি মনে করে থাকেন তাদের এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে তা হলে ভুল করবে। তারা আশাহত হবে।ভারতের এই সিদ্ধান্তের পর আবারও বিশ্বব্যাপী সমালোচনায় পড়েছে তারা। সুতরাং এটা কোন সমাধানের পথ হতে পারে না। এটার পর বরং সমস্যা বাড়তেই থাকবে।’

সোমবার সকালে ভারতের সংবিধানে ৩৭০ ধারায় জম্মু ও কাশ্মীরকে যে বিশেষ রাজ্যর অধিকার দেয়া হয়েছিল তা বাতিল করা হয়। ফলে এখন থেকে জম্মু ও কাশ্মীর কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ন্ত্রিত অঞ্চল বলে বিবেচিত হবে বলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ঘোষণা দেন।

এই ঘোষণা দেয়ার পরই পাকিস্তানের পক্ষ থেকে এ মন্তব্য এলো। কাশ্মীরে আরো বেশি পরিমাণ নিরাপত্তা বাহিনী নিয়োজিত করা ও মোবাইল ফোন এবং ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছে বৃহত্তর গণতন্ত্রের দেশ ভারতের রাজনীতিবিদরা। সংসদে ওই সিদ্ধান্তের পক্ষে-বিপক্ষে বক্তব্য-প্রতিবাদের পাশাপাশি সামাজিক মাধ্যমেও নিজ নিজ অবস্থান তুলে ধরছেন তারা। এখন পর্যন্ত ওই সিদ্ধান্তের সমর্থন জানিয়েছে ভাজপা, বিজেডি, শিবসেনা, ওয়াইএসআরসিপি, আপ। অন্যদিকে, বিরোধিতা জানিয়ে সরব হয়েছে কংগ্রেস ও জেডিইউ।

Bellow Post-Green View