চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘কালো ছত্রাক’ সংক্রমণে চোখ হারাচ্ছেন করোনা রোগীরা

ভারতে করোনা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে মিউকরমাইসিস বা কালো ছত্রাকের সংক্রমণ দেখা দিচ্ছে। এই সংক্রমণ খুবই ভয়াবহ। ছত্রাকটি সাইনাস, মস্তিষ্ক ও ফুসফুসে আক্রমণ করে।

দেশটির সরকার ডাক্তারদের সংক্রমণের লক্ষণ বিষয়ে জানতে বলেছে। সম্প্রতি ভয়াবহ সংক্রমণের হার অনেক বেড়ে গেছে।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চ (আইসিএমআর) জানিয়েছে, যেসব ডাক্তার করোনাআক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা করছে তারা বলেছে, যাদের ডায়াবেটিস আছে বা যাদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কম তাদের প্রাথমিক লক্ষণগুলোর দিকে নজর রাখতে হবে। সেগুলো হলো, সাইনাসের ব্যথা বা মুখের এক দিকে নাক বন্ধ, একদিকে মাথাব্যথা, ফুলে উঠা বা অবশ হয়ে যাওয়া, দাঁতে ব্যথা এবং দাঁত নড়ে যাওয়া।

বিজ্ঞাপন

তারা এও বলেছেন, কালো ছত্রাকের কারণে নাকের উপরে কালো দাগ বা ফ্যাকাশে হয়ে যেতে পারে, দৃষ্টি ঝাপসা বা দুটি করে দেখা যেতে পারে, বুকে ব্যথা, শ্বাস নিতে সমস্যা এবং কাশির সঙ্গে রক্ত যেতে পারে। এসবই ডায়াবেটিসের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত।

এই ছত্রাক সংক্রমণে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে করোনারোগীরা। বিশেষ করে যাদের চিকিৎসার সময়ে স্টেরয়েড ব্যবহার করা হয়েছে এবং যারা দীর্ঘ সময় হাসপাতালের আইসিইউতে কাটিয়েছে বলে জানিয়েছে আইসিএমআর।

করোনা সংক্রমণ তীব্র হলে চিকিৎসা করার সময় স্টেরয়েড যেমন ডেক্সামিথাসন ব্যবহারের ফলে ডায়াবেটিস আরো বেড়ে যেতে পারে। ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ডেভিড ডেনিং বলেন, আরো বেশ কিছু দেশ যেমন যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স, অস্ট্রিয়া, ব্রাজিল ও মেক্সিকোতেও ছত্রাকটির সংক্রমণ দেখা গেছে। কিন্তু ভারতে সংখ্যাটা সবচেয়ে বেশি।

ভারতের মহারাষ্ট্র ও গুজরাটে সংক্রমণ সব থেকে বেশি। আইসিএমআরের বিজ্ঞানী অপর্ণা মুখার্জী বলেন, কালো ছত্রাক সংক্রমণ নিয়ে আতঙ্কিত হলে হবে না, বরং সচেতন হতে হবে কখন ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।

বিজ্ঞাপন