চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

কাঁদালে তুমি মোরে

ফুটবল খেলা আনন্দের নাকি বেদনার? সার্বিক অর্থে মনে হয়, ফুটবল যেন কষ্টের, যন্ত্রণার ও বিষাদের খেলা। ফুটবল এমন একটি খেলা, যা পুরো পৃথিবীকে কাঁদায়। এই বিশ্বকাপ ফুটবলের কথাই ধরা যাক। ফুটবলের এই মহাযজ্ঞের বাছাইপর্বে অংশ নেয় ফিফার সদস্য ২১১টি দেশ।

বাছাইপর্বে পর্যায়ক্রমে এক একটি দেশ বাদ পড়তে থাকে, সেইসঙ্গে কান্নার পাল্লা ভারী হতে থাকে। এর অংশীদার তো আমরাও। আমাদের তো সবার আগেই কাঁদতে হয়। চোখের জল শুকিয়ে যাওয়ায় এখন আর বোধহয় কেউ সেজন্য কাঁদে না।

বিজ্ঞাপন

আর বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রধান আকর্ষণ চূড়ান্ত পর্ব। ঝলমল করতে থাকে আলোর বন্যায়। সবার চোখ থাকে হাসি-কান্নার এই মঞ্চে। চূড়ান্ত পর্বের ৩২টি দেশ থেকে যখন এক একটি বিদায় নেয়, তখন কান্নার আহাজারি বাড়তে থাকে। মিডিয়ার কল্যাণে দেখতে পাওয়া সেই কান্না আমাদেরও আবেগাপ্লুত করে। দারুণভাবে ছুঁয়ে যায় হৃদয়। অবশ্য শুধু ছুঁয়ে যাওয়া লিখি না কেন, প্রিয় দলের ব্যর্থতা হৃদয়ে দাগও কাটে। কী এক ভালোবাসায় ভিন দেশগুলো আমাদেরও কাঁদায়।

নিজের দেশ হেরে যাওয়ার পর গ্যালারিতে বসে থাকা বিভিন্ন দেশের মায়াবী মুখের মেয়েগুলোর চোখ যখন অশ্রুসজল হয়ে ওঠে, তখন বুক ভেঙে যেতে চায়। আহা, মেয়েগুলো কেন এত কষ্ট পায়? কেন বিষাদ ছুঁয়ে যায়? কেন এমন করে কাঁদে? তখন কি তাঁদের বুকের মধ্যে বাজতে থাকে ‘কাঁদালে তুমি মোরে ভালোবাসারই ঘায়ে/নিবিড় বেদনাতে পুলক লাগে গায়ে’। খুব ইচ্ছে করছিল ভালোবাসার রুমাল দিয়ে মেয়েগুলোর কান্না মুছিয়ে দিতে।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপ ফুটবলে শেষ অব্দি চ্যাম্পিয়ন দলটি ছাড়া আর সব দেশই স্বপ্ন ভঙের বেদনা নিয়ে কাঁদতে কাঁদতে ফিরে যায়। এই কান্না তো একটি দেশের কান্না। একটি জাতির কান্না। একটি জনগোষ্ঠীর কান্না। সহসা থেমে যায় না। প্রতিনিয়ত ক্ষত-বিক্ষত করে। অনেকটা গানের ভাষায়, ‘আমার স্বপ্নগুলো কেন এমন স্বপ্ন হয়/এই মনটা কেন বারে বারে ভেঙে যায়/আমার কবিতাগুলো প্রতিদিন ছন্দ হারায়/তোমার স্মৃতিগুলো প্রতি রাতে আমাকে কাঁদায়।’

বিশ্বকাপ ফুটবলকে কেন্দ্র করে কখনো না কখনো ২১০টি দেশকে কাঁদতেই হয়। কেননা, সবার পক্ষে চূড়ান্ত গন্তব্যে পৌঁছানোর সুযোগ নেই। অবশ্য চ্যাম্পিয়ন দলটিও কাঁদে। যদিও তা আনন্দের কান্না।

যে খেলাটি দুনিয়ার মানুষকে এত কষ্ট দেয়, এত ব্যথিত করে, এত এত কাঁদায়, তারপরও কেন এই খেলাটিকে সবাই ভালোবাসে? এর কি কোনো ব্যাখ্যা আছে? আসলে জীবন তো এমনই। কখনও কাঁদায়। কখনও হাসায়। ফুটবল তো জীবনেরই অংশ। সঙ্গত কারণে ফুটবলেও তো এর প্রতিফলন ঘটে। স্বপ্নভঙের বেদনা থাকলেও স্বপ্ন দেখা থেমে থাকে না। সবাই আবার স্বপ্ন দেখে। চার বছর পর কষ্টগুলোও ফিরে ফিরে আসে। তবুও সবাই অপেক্ষায় থাকে। আইয়ুব বাচ্চুর গানের মতো, ‘আমি কষ্ট পেতে ভালোবাসি, তাই তোমার কাছে ছুটে আসি’।

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। চ্যানেল আই অনলাইন এবং চ্যানেল আই-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)

Bellow Post-Green View