চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘কথা বলার অনেক সময় পড়ে আছে’

ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় টি-টুয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশ দলে চমক হয়ে এসেছেন ইয়াসিন আরাফাত মিশু। টাইগারদের লাল-সবুজ জার্সিতে অভিষেকের অপেক্ষায় ২০ বছর বয়সী এ ডানহাতি পেসার। স্বপ্নকে ছুঁয়ে দেখার মাহেন্দ্রক্ষণ ধরা দিতে পারে শুক্রবার সন্ধ্যায় শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচেই।

বাংলাদেশ তিন পেসার নিয়ে নামলেই অভিষেক হয়ে যাবে ইয়াসিন আরাফাতের। প্রথম দুই ম্যাচের জন্য ঘোষিত স্বাগতিকদের দলে পেসারই কেবল তিনজন। অপর দুইজন হলেন মোস্তাফিজুর রহমান ও পেস-অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

বিজ্ঞাপন

জাতীয় দলে নবাগত হলে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে অনুভূতি প্রকাশ করাটা অলিখিত নিয়ম! সোমবার দল ঘোষণার পরপরই ইয়াসিনের মোবাইল ফোনটি ব্যস্ত হয়ে পড়ে অভিনন্দন বার্তায়। সাক্ষাতকারের জন্য ফোন কলও পেয়েছেন অসংখ্য। তবে কারোর ডাকেই সাড়া দেননি নোয়াখালীর এ তরুণ।

প্রথমে বিসিবির বিধিনিষেধের কথা বড় করে সামনে আনলেও পরে বোঝা গেল তা ছিল কেবল অজুহাত দাঁড় করাতে। আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভালো কিছু করার আগে নিজেই কথা বলতে চান না তিনি।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার অবশ্য কথা বলেছেন খানিকটা। দুপুরে মিরপুরের একাডেমি ভবনে পাওয়া গেল এ তরুণকে। বললেন, ‘আমি চাচ্ছি না দেশের হয়ে খেলার আগে মিডিয়ায় হাইলাইট হতে। কথা বলার অনেক সময় পড়ে আছে। ভালো কিছু করেই মিডিয়ার মুখোমুখি হতে চাই। তার আগে না। কেবল তো শুরু হচ্ছে আমার ক্যারিয়ার, সামনে হয়ত অনেক উপলক্ষ আসবে কথা বলার।’

গত বছর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের একটি ম্যাচে শক্তিশালী আবাহনীর বিপক্ষে ৪০ রানে ৮ উইকেট নিয়ে আলোচনায় আসেন গাজী গ্রুপের হয়ে খেলা ইয়াসিন। যেটি কিনা লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের পক্ষে রেকর্ড উইকেট শিকার।

৬ ফুট ২ ইঞ্চি উচ্চতার ডানহাতি এ পেসার ওই কীর্তির পর থেকেই আলোচনায়। দ্রুতই চলে আসেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের প্রাথমিক দলে। সেবার ছিটকে পড়লেও এবার সরাসরি ১৩ সদস্যের দলে চলে এসেছেন।

অস্ট্রেলিয়ায় ২০২০ সালের টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ সামনে রেখে তরুণ খেলোয়াড়দের বাজিয়ে দেখা হবে ত্রিদেশীয় সিরিজে। তার আগেই নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ পাচ্ছেন ইয়াসিন। বুধবার ফতুল্লায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বিসিবি একাদশের হয়ে প্রস্তুতি ম্যাচে খেলবেন তিনি।

Bellow Post-Green View