চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

একে অপরে মুগ্ধ তারা !

‘বউ বলেন ডানে, তো শাশুড়ি বলেন বামে। শাশুড়ির পছন্দ এক, তো বউয়ের আরেক!’ সাধারণত অধিকাংশ পরিবারের শাশুড়ি-বউয়ের মধ্যকার সম্পর্ক এমনটাই! যাকে এক কথায় বলে ‘বউ-শাশুড়ির যুদ্ধ’।

তবে সেই দিক থেকে ক্ষাণিকটা ব্যতিক্রম বলিউডের দুই প্রজন্মের দুই জনপ্রিয় অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর এবং কারিনা কাপুর খানের মধ্যকার সম্পর্কের। যুদ্ধ নয়, তাদের মধ্যে রয়েছে মুগ্ধতা! যেই মুগ্ধতার জেরেই প্রায় সময়ে একে অপরের প্রশংসা করতে থাকেন এই বউ-শাশুড়ি।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ই-টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কারিনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে শর্মিলা ঠাকুর বলেন, ‘কারিনাকে আমার ভীষণ ভালো লাগে। ওর মধ্যে সবচেয়ে ভালো গুণ ও সব সময় শান্ত থাকে। ওর স্টাফ, হেয়ারড্রেসার কিংবা ডিজাইনার, প্রত্যেকের সঙ্গে ওর ব্যবহার বার বার লক্ষ্য করেছি। আমি নিজেও মাঝেমধ্যে আমার হেয়ার ড্রেসারের উপর রেগে যাই। কিন্তু কারিনা কখনও মেজাজ হারায় না। ও সামনে থাকলে আমিও শান্ত থাকতে পারি। নিজেকে কখনও কারও সঙ্গে তুলনা করে না কারিনা, ও নিজের মতোই চলে। তাকে পুত্রবধূ হিসেবে পেয়ে আমি ভীষণ খুশি। ও তো আমাকে সব সময়ে বলে, আমি তোমার মেয়ের মতোই। আমিও স্বীকার করে নেই যে, ও আমার আরেকটা মেয়ে।’

তবে শুধু শর্মিলা নন, এর আগে কারিনাও তার শাশুড়ি সম্পর্কে কথা বলেছেন। এমনকি, মা ববিতা কাপুর এবং বোন কারিশমা কাপুরের মতো শাশুড়ি শর্মিলা ঠাকুরকে তার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব মনে করেন কারিনা।

২০১২ সালে শর্মিলা পুত্র সাইফ আলি খানের সঙ্গে গাঁটছাড়া বাঁধেন কারিনা কাপুর খান। সেই থেকে দুজনে সংসার করছেন। তাদের দুই সন্তান তৈমুর এবং জেহ।

বিজ্ঞাপন