চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

উইলিয়ামসের সেঞ্চুরিতেও আটকাল না লঙ্কার জয়

বিজ্ঞাপন

স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে শন উইলিয়ামসের সেঞ্চুরির উপর ভর করে বড় লক্ষ্যই ছুঁড়ে দিয়েছিল জিম্বাবুয়ে। তাতেও অবশ্য কাজের কাজ হয়নি। লক্ষ্য তাড়া করে ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে নিয়ে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল লঙ্কানরা। 

রোববার পাল্লেকেল্লেতে দিবারাত্রির ম্যাচে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামা জিম্বাবুয়ে ৯ উইকেটে ২৯৬ রান করে। জবাবে শ্রীলঙ্কা ৯ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখেই জয় নিশ্চিত করে।

pap-punno

জিম্বাবুয়েকে দারুণ সূচনা এনে দিয়েছিলেন তাকুডজানাসে কাইটানো এবং রেজিস চাকাভা। ১৪.৪ ওভারে এই ওপেনিং জুটি স্কোরবোর্ডে ৮০ রান তুলে ফেলেন। লেগ ব্রেক বোলার জেফরি ভানডেরসাইয়ের বলে লেগ বিফোরে কাটা পড়ে ৬৫ বলে ৭ চারের মারে ৪২ রানে কাইটানোর ইনিংস থামলে এই জুটি ভাঙে।

তিনে নামা অধিনায়ক গ্রেগ আরভিন ৯ রানের বেশি কোর্টে পারেননি, কামিন্দু মেন্ডিসের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন। এরপর চাকাভাকে নিয়ে ৫০ রানের জুটি গড়েন উইলিয়ামস।

সাবলীল ব্যাট করতে থাকা চাকাভা ৮১ বলে ৬ চার ও এক ছক্কার মারে ৭২ রানের ইনিংস খেলার পর স্লগ সুইপ করতে গিয়ে বল তার গ্লাভসে লাগে। উইকেটরক্ষক তা ধরে ফেলার পর ডিআরএস নিশ্চিত করে বল গ্লাভসে লেগেছিল। ফলে তাকে ক্রিজ ছাড়তে হয়।

বাকি ব্যাটারদের কাছ থেকে উইলিয়ামস তেমন সুবিধা পাননি, আসা যাওয়াতেই ছিল তাদের ব্যস্ততা। ওয়েসলি মাদভিরে ২০ ও সিকান্দার রাজা করেন ১৮ রান।

নিজের দায়িত্ব ঠিকই পালন করে সেঞ্চুরি তুলে নেন উইলিয়ামস। অষ্টম ব্যাটার হিসেবে চামিকা করুণারত্নের বলে বোল্ড হওয়ার আগে তিনি ৮৭ বলে ৯ চার ও ২ ছক্কার মারে ঠিক ১০০ রান করেই মাঠ ছাড়েন।

Bkash May Banner

শেষদিকে রিচার্ড এনগারাভা ২ বলে এক চার ও এক ছক্কার মারে ১০ রান তুললে তিনশর কাছাকাছি স্কোর পায় জিম্বাবুয়ে।

লঙ্কার হয়ে করুণারত্নে ৬৯ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। দুটি করে উইকেট পান ভানডেরসাই ও নুয়ান প্রদীপ। একটি উইকেট পকেটে পুরেন কামিন্দু মেন্ডিস।

জবাব দিতে নেমে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে শ্রীলঙ্কাও। ২৪ বলে ৬ চারের মারে ২৬ রান করা কুশাল মেন্ডিস আউট হলে ৪০ রানের ওপেনিং জুটি শেষ হয়। তিনে নামা কামিন্দু মেন্ডিস ১৭ রান রানের বেশি করতে পারেননি।

এরপর পাথুম নিশঙ্কা আর দিনেশ চান্ডিমাল তৃতীয় উইকেটে ৬৬ রানের জুটি গড়ে রানের চাকা সচল রাখেন। নিশাঙ্কা ৭১ বলে ১০ চারের মারে ৭৫ রান করে আউট হন।

এরপর দিনেশ চান্দিমাল ও চারিথ আশালঙ্কা মিলে ১২৯ রানের জুটি গড়ে শ্রীলঙ্কাকে জয়ের বেশ কাছে পৌঁছে দেন। ২৭৬ রানের মাথায় ম্যাচ সেরা চান্দিমাল আউট হওয়ার আগে ৯১ বলে ৪টি চার ও এক ছক্কায় ৭৫ রান করেন। আশালঙ্কা আউট হন ৬৮ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ৭১ রান করে।

দাসুন শানাকা ১০ এবং চামিকা করুনারত্নে ৫ রান করে অপরাজিত থেকে শ্রীলঙ্কার জয় নিশ্চিত করেন।

৫৬ রান দিয়ে ৩ উইকেট দখল করেন জিম্বাবুইয়ান বোলার এনগারাভা। একটি করে উইকেট পান মুজারাবানি ও রাজা।

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View