চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আরিয়ানকে ‘হয়রানি’র বিপক্ষে সোচ্চার পুরো বলিউড

বৃহস্পতিবারও (১৪ অক্টোবর) জামিন মেলেনি শাহরুখ পুত্র আরিয়ান খানের। মুম্বাই আদালত ঘোষণা করেছে, এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে আগামী বুধবার (২০ অক্টোবর)। তাই ততোদিন পর্যন্ত জেল হেফাজতেই থাকতে হবে আরিয়ানকে।

ইতোমধ্যেই আরিয়ান খানের সমর্থনে মুখ খুলেছেন বলিউডের একাধিক তারকা। অনেকে বলছেন শুধুমাত্র শাহরুখ খানের ছেলে হওয়ার কারণেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং জামিনও দেয়া হচ্ছে না।

তবে এবার বিষয়টি ‘হয়রানি’র পর্যায়ে চলে গেছে বলে মনে করছেন স্বরা ভাস্কর, হংসল মেহতা, রাহুল ঢোলাকিয়া সহ আরও বেশ কিছু তারকা।

আরিয়ানের প্রসঙ্গে বরাবরই সোচ্চার অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর বার বার আরিয়ানের জামিন খারিজের ব্যাপারে বিরক্তি প্রকাশ করে নিজের টুইট বার্তায় লিখেছেন, আরিয়ান খানের জামিনের বিষয়টি এখন পুরোই ‘হয়রানি’র সামিল। আদালতের এই সিদ্ধান্তটি এখন নিন্দার পর্যায়ে চলে গিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

একই প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র নির্মাতা হংসল মেহতা টুইটে লিখেছেন, “অনেক দেশে মারিজুয়ানা/গাঁজা সেবন এখন বৈধ। এটিকে অপরাধযোগ্য বিষয় হিসেবেও অনেক দেশে গণ্য করা হয় না। আমাদের দেশে যদি এর সেবন অপরাধই মনে করা হয় তবে কাউকে শুধু হয়রানি না করে তা ভালো ভাবে নিয়ন্ত্রণ করা উচিত।’’

শাহরুখ অভিনীত ‘রইস’ সিনেমার পরিচালক রাহুল ঢোলাকিয়া তার টুইট বার্তায় জানান, আমি আইনের প্রতি সর্বোচ্চ সম্মান রাখি। তবে দূর্ভাগ্যবশত আরিয়ানের প্রতি নেওয়া সিদ্ধান্তকে এখন একটু বেশি বেশি মনে হচ্ছে। বিষয়টি যে ‘হয়রানি’র পর্যায়ে চলে গেছে তা আর কারও বোঝার বাকি নেই।

এদিকে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কাজলের বোন ও অভিনেত্রী তানিশা বলেন, ‘আমার পরিষ্কার মনে হয় আরিয়ানের জন্য এটা হয়রানি। কারণ, বাচ্চাটাকে মিডিয়া ট্রায়ালে রাখা হয়েছে! এটি সত্যিকারের সাংবাদিকতাও নয়, শুধুমাত্র চটকদার খবর পরিবেশনের স্বার্থে।’

তিনি আরও বলেন, ‘দুর্ভাগ্যবশত, লোকেরা আমাদের তারকাদের প্রতি এমন উদাসীন হয়ে উঠেছে যে, একজন স্টার কিড হওয়ার সুবিধা ও অসুবিধা নিয়ে কথা বলছে! সত্যিই? আসলে তাদের কোনো সহানুভূতি নেই।’

এছাড়াও আরিয়ানকে নিয়ে ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্টও শেয়ার করে তানিশা লিখেছেন, ‘তাকে মুক্ত করুন!!’

বিজ্ঞাপন