চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আবাহনীর আট উইকেট নিয়ে ইতিহাসে ইয়াসির

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর বিপক্ষে আট উইকেট নিয়ে ইতিহাসে নাম লিখিয়েছেন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের ইয়াসির আরাফাত মিশু। বুধবার ফতু্ল্লায় ৮.১ ওভার বল করে ৪০ রান খরচায় আট উইকেট নেন ১৯ বছর বয়সী এই মিডিয়াম পেসার। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দল আবাহনী ২৬.১ ওভারে গুটিয়ে গেছে ১১৩ রানে।

আট উইকেট পাওয়ায় লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটের ইতিহাসে একাদশতম আর সেরা বোলিংয়ে বিশ্বের অষ্টম স্থানে চট্টগ্রামের ছেলে ইয়াসির। সেরা বোলিং ভারতের রাহুল সাংভীর। দিল্লীর হয়ে হিমাচল প্রদেশের বিপক্ষে ১৫ রানে আট উইকেট শিকার করেছিলেন ১৯৯৭ সালে। আট উইকেট শিকারি বোলারদের মধ্যে চামিন্দা ভাস, মাইকেল হোল্ডিং, শন টেইটের মতো বিখ্যাত খেলোয়াড় রয়েছেন।

Advertisement

বুধবার ফতুল্লায় প্রিমিয়ার লিগের দশম রাউন্ডের ম্যাচে বল হাতে ইনিংসের সূচনা করেন ইয়াসির। প্রথম ওভারে দেন ৫ রান। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে বাউন্ডারি মারেন এনামুল হক বিজয়। তখন কে জানত সামনে কত ভয়াবহ পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে আবাহনীর জন্য। বিজয় সিঙ্গেল নিয়ে স্ট্রাইক বদলানোর পরই মড়ক শুরু। সাইফ হাসান প্রথম বল মোকাবেলা করতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন নাঈম হাসানের হাতে।

নাজমুল হোসেন শান্ত নেমে প্রথম বলটি ডট খেলেন। পরের বলে নাঈমের হাতেই ক্যাচ দিয়ে ফেরেন শান্ত। ওই ওভারে দুই উইকেট নেয়া ইয়াসির আর থামেননি। পরের ওভারে নাসির হোসেন ও মোসাদ্দেক হোসেনকে সাজঘরে পাঠান। নিজের সপ্তম ওভারে নেন তিন উইকেট। আর নবম ওভারে আবাহনীর শেষ ব্যাটসম্যান মানান শর্মাকে সাজঘরে পাঠিয়ে ইতিহাসের অংশ হন।

বাংলাদেশের ঘরোয়া ওয়ানডে লিগে আট উইকেট শিকার দ্বিতীয় ঘটনা ঘটনা এটি। গত বছর প্রথম বিভাগ ক্রিকেট লিগে আট উইকেট শিকার করেছিলেন অনিল বাবু। শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে ট্যালেন্ট হান্ট ক্রিকেট একাডেমির প্রথম আট ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে পাঠান ওল্ড ডিওএইচএসের এই বাঁহাতি পেসার। ৮ উইকেট নিতে টানা ১০ ওভার বোলিং করে ৩০ রান খরচ করেন। আট উইকটে নেয়া প্রথম বোলার আলাউদ্দিন বাবু।