চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

আবারও বাজিমাত করলেন তাসকিন রহমান!

Nagod
Bkash July

‘ঢাকা অ্যাটাক’ মুক্তির পর সবচেয়ে বেশী আলোচিত হয়েছিলেন তাসকিন রহমান। নায়ক আরিফিন শুভকে ছাপিয়ে খলনায়ক হিসেবে তিনি হয়েছিলেন সিনেমাটির প্রাণভোমরা! তার দুর্দান্ত অভিষেক মুগ্ধ করেছিল দর্শকদের। সেই সময় তাসকিনকে নিয়ে মেতে ছিলেন দর্শক।

তিন বছর পর ঢাকা অ্যাটাকের সিক্যুয়ালে নির্মিত ‘মিশন এক্সট্রিম’-এও বাজিমাত করলেন তাসকিন!

‘ক্যাট আই’ লুক ও ঠাণ্ডা মাথার অভিনয়ে তাসকিন আবারও দারুণ অভিনয় করলেন! বৃহস্পতিবার ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমার প্রিমিয়ার দেখার পর তাসকিনের অভিনয়ের তারিফ করতে ভোলেননি দর্শক। ঠাণ্ডা মাথায় একটার পর একটা হামলার পরিকল্পনায় উৎরে গেছেন এ অভিনেতা! পুরো সিনেমায় তাকে ধরতে তৎপর ছিলেন নায়ক শুভ।

কিন্তু ব্যর্থ হন তাকে ধরতে। প্রথম কিস্তিতে পর্দায় নায়ক শুভ ভিলেন তাসকিনকে ধরতে ব্যর্থ হলেও দর্শক ঠিকই তাসকিনকে ধরেছেন তার অভিনয়ের কারণে! যখনই তিনি পর্দায় হারিজ হচ্ছিলেন উপস্থিত দর্শক ছিলেন উৎকণ্ঠিত। এজন্য অনেকেই তাসকিনকে ‘ওয়ার্ল্ড ক্লাস’ অভিনেতা বলে আখ্যা দিয়েছেন।

কিছু একটা করবেন তিনি! মাস্টারমাইন্ড হয়ে নেপথ্যে থেকে তাসকিন দেখিয়েছেন সুনিপুণ অভিনয়।টেরোরিজম ইঙ্গিত পূর্ণ চরিত্র ‘থ্রি নট থ্রি’তে তার বডি ল্যাংগুয়েজও যেন অভিনয় করছিল! হালকা লেন্সের চশমার ফাঁক দিয়ে তাসকিনের নীল চোখের এক্সপ্রেশনে শিউরে ওঠেন দর্শক। তাসকিনের অভিনয়ে কোথাও বিন্দুমাত্র কমতি মনে হয়নি। এমনটাই বলেছেন বহু দর্শক।

সিনেমার নায়ক আরিফিন শুভকে বেশ সুদর্শন লেগেছে। তার ভালো অভিনয়ের চেষ্টা দর্শকদের মুগ্ধ করেছে। এই সিনেমার জন্য সিক্স প্যাক বডি বানিয়েছেন, পরিশ্রম করেছেন। সিনেমাতে তাকে সুঠাম দেহে দেখা গেলেও প্রথম পর্বে দেখানি সিক্সপ্যাকের কারিশমা! তবে দর্শকদের প্রত্যাশা, পরের কিস্তিতে হয়তো শুভ’র সিক্সপ্যাক বডি দেখতে পারবেন!

নায়িকা ঐশীকে পর্দায় মন্দ লাগেনি। সিনেমার মাধ্যমে তার অভিষেক প্রসংশীয়। আরেক অভিনেত্রী সাদিয়া নাবিলা সবচেয়ে বেশি নজর কেড়েছেন পুলিশ চরিত্রে অভিনয় করে। তার তীক্ষ্ণ দৃষ্টি, চরিত্রের বোল্ডনেস- সব মিলিয়ে নাবিলাকে পছন্দ করেছেন দর্শক। এর বাইরে সহশিল্পী হিসেবে সুমিত, শতাব্দী ওয়াদুদ, রাশেদ অপু, নাজমুস সাকিব বেশ ভালো করেছেন।

‘ঢাকা অ্যাটাক’ যারা দেখেছেন তারা অনেকটাই আগের সিনেমার সঙ্গে মিল খুঁজে পাবেন। তবে সিনেমাটির কালার ও সম্পাদনা ছিল প্রশংসনীয়।

BSH
Bellow Post-Green View