চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আন্তর্জাতিক ভ্রমণে বিধি-নিষেধ বাড়ালো কানাডা

কানাডায় করোনা মহামারীর চলমান দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যে ভাইরাসটি যেন আর বিস্তার রোধ করতে না পারে সেই লক্ষ্যে দেশটি আন্তর্জাতিক ভ্রমণে বিধিনিষেধ বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে।

এক বিবৃতিতে জননিরাপত্তা ও জরুরী প্রস্তুতি মন্ত্রী বিল ব্লেয়ার ঘোষণা করেছেন যে মার্কিন নাগরিকদের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞাগুলি ২১ ডিসেম্বর অবধি বাড়ানো হবে এবং অন্য দেশ থেকে আগত লোকদের উপর নিষেধাজ্ঞাগুলি ২১ জানুয়ারি, ২০২১ পর্যন্ত বাড়ানো হবে। মন্ত্রী বিবৃতিতে আরো বলেন, কানাডা সরকার ভ্রমণ বিধিনিষেধ ও নিষেধাজ্ঞাগুলির পাশাপাশি কানাডিয়ানদের সুস্থ ও নিরাপদ রাখার লক্ষ্যে চলমান ভিত্তিতে পৃথকীকরণ বা বিচ্ছিন্ন করার প্রয়োজনীয়তার মূল্যায়ন অব্যাহত রেখেছে।

বিজ্ঞাপন

তবে কানাডার নাগরিকদের নিকটবর্তী পরিবারের সদস্যরা, অপরিহার্য কর্মী, মৌসুমী কর্মী, কেয়ারগিভার এবং আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যতিক্রম রয়েছে ।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, গত ১৬ মার্চ থেকে কানাডা, বিদেশি নাগরিকদের কানাডায় প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা শুরু করে। যাতে করে কোভিড ১৯-এ আক্রান্তের সংখ্যা কমে আসে। এটি ২১ মার্চ পরিবর্তিত হয় এবং পরে কানাডা-মার্কিন সীমান্ত উভয় দেশের মধ্যে পারস্পরিক আলোচনার মাধ্যমে অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণে পারস্পরিকভাবেই তা বন্ধ ছিল। পরবর্তিতে ধাপে ধাপে এ নিষেধাজ্ঞার সময় বাড়ানো হয়।

অন্যদিকে কানাডার প্রধান জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ থেরেসা ট্যাম তার আগের দিনের কঠোর হুঁশিয়ারি পুনরুদ্ধার করে বলেছেন,- আমরা যদি বর্তমান গতিতে অব্যাহত থাকি তবে ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে আক্রান্তের সংখ্যা দিনে ১০ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে। তিনি বলেন বর্তমানে প্রতিদিনের গননার তুলনায় তা দ্বিগুণেরও বেশি।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৮২ হাজার ৮১২ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ১২ হাজার ১ শত ৯৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৪ হাজার ২ শত ২৫ জন।

উল্লেখ্য দেশটির সরকার নাগরিকদের জনস্বাস্থ্যর গুরুত্বের পাশাপাশি অর্থনৈতিক নিশ্চয়তা, ব্যবসা বানিজ্যের সুরক্ষা ও দুর্যোগ মোকাবেলার যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে, তা প্রশংসার দাবি রাখে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।