চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অস্ট্রেলিয়াকে হারানোর এটাই মোক্ষম সুযোগ?

চোট ও ব্যক্তিগত কারণে অস্ট্রেলিয়ার তারকা ক্রিকেটারদের অনেকেই আসেননি বাংলাদেশ সফরে। অজিদের তাই টি-টুয়েন্টিতে হারানোর বড় সুযোগ দেখছেন অনেকে। টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ অবশ্য এ ব্যাপারে সরাসরি মন্তব্য না করলেও শুনিয়েছেন সেরা ক্রিকেট খেলার প্রত্যয়ের কথা।

‘সেরা সুযোগ কিনা সেটি এ মুহূর্তে বলা কঠিন। কারণ তারা খুব ভালো একটি দল। ভালো ক্রিকেট খেলেই ওদের হারাতে হবে।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

‘গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল, ম্যাচে আমরা কত ভালো ভাবে স্কিলগুলো ম্যাচের দিন প্রয়োগ করতে পারি, ম্যাচের কন্ডিশন ও পরিস্থিতি অনুযায়ী নিজেদের কতটা মেলে ধরতে পারি। এই জিনিসগুলোর উপরে অনেক কিছুই নির্ভর করে। আমার মনে হয় খুব ভালো একটা সিরিজ হবে।’

‘আমরা জিম্বাবুয়েতে পুরো সিরিজজুড়ে ভালো ক্রিকেট খেলেছি। আমাদের আত্মবিশ্বাসও আছে। আমরা অপেক্ষায় আছি যেন সেরা ক্রিকেটটা খেলতে পারি।’ বলেন মাহমুদউল্লাহ।

বিজ্ঞাপন

প্যাট কামিন্স, ডেভিড ওয়ার্নার, গ্লেন ম্যাক্সওয়েলদের পর চোটের কারণে সফরের শেষ মুহূর্তে ছিটকে গেছেন অস্ট্রেলিয়ার নিয়মিত অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। জিম্বাবুয়ে সফরে জৈব সুরক্ষা বলয় ছেড়ে আসায় সিরিজটি খেলা হচ্ছে না স্বাগতিক দলের অন্যতম সেরা তিন ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাসেরও।

তাদের জায়গায় তরুণদের সামর্থ্য প্রমাণের সুযোগ দেখছেন অধিনায়ক। নিজেদের মাটিতে বাংলাদেশ ভালো দল, সেই তকমা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভালো ক্রিকেট খেলে ধরে রাখতে চান মাহমুদউল্লাহ।

‘ওদের গুরুত্বপূর্ণ কয়েকজন ক্রিকেটার আসেনি। একইভাবে আমরাও কিছু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় মিস করছি। লিটন, তামিম, মুশফিককে মিস করছি। তবে আমাদের দলের জন্য এটা বড় একটা সুযোগ। প্রতিটি খেলোয়াড়ের জন্যও সুযোগ নিজেদের সামর্থ্য দেখানোর। সবসময় বিশ্বাস করি, ঘরের মাটিতে আমরা বেশ ভালো দল। আমরা চেষ্টা করবো সেটা যেন আরও একবার প্রমাণ করতে পারি।’

মঙ্গলবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে শুরু হবে পাঁচ ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজের প্রথমটি। অজিদের বিপক্ষে টাইগারদের এটি প্রথম ছোট ফরম্যাটের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। খেলা শুরু হবে সন্ধ্যা ৬টায়।