চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অসময়ে এক সফল উদ্যোক্তার মর্মান্তিক মৃত্যু

করোনাভাইরাস সংক্রমণের শুরুর দিকে ধারণা করা হয়েছিল এ বৈশ্বিক মহামারীর কারণে অনেক অপরাধ কমে যাবে। মহামারী থেকে শিক্ষা নিয়ে প্রায় সব মানুষ তার জীবনাচরণকে জনকল্যাণে পরিচালিত করবে। কিন্তু তা আর হলো না। এর সর্বশেষ প্রমাণ রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাওয়ের সহপ্রতিষ্ঠাতা ও সফল উদ্যোক্তা ফাহিম সালেহকে খুন। তাকে খুনের মধ্য দিয়ে সেই আশায় গুঁড়েবালি পড়েছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের খবরে জানা যায়, নিউইয়র্কের ম্যানহাটানে খুন হয়েছেন তিনি। নিউইয়র্ক পুলিশ ফাহিমের নিজ অ্যাপার্টমেন্ট থেকে মঙ্গলবার বিকালে ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করেছে। ঘটনাস্থল থেকে ধারালো বৈদ্যুতিক করাত উদ্ধার করেছে নিউইয়র্ক পুলিশ। এছাড়া ভবনের লিফটের সিসি ক্যামেরার ফুটেজে মুখোশধারী সন্দেহভাজন হত্যাকারীর ছবি দেখা গিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

নিউইয়র্কের এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ফাহিমের শরীরের হাত-পা, মাথা সবকিছু খণ্ড-বিখণ্ড ছিল। সেভাবেই তার লাশ উদ্ধার হয়েছে। ওই অ্যাপার্টমেন্টের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে কালো স্যুট এবং কালো মাস্ক পরা একজন ব্যক্তির সাথে একই লিফটে প্রবেশ করেন ফাহিম সালেহ। লিফট তার অ্যাপার্টমেন্টের সামনে দাঁড়ালে দুজনেই সেখান থেকে বের হয়ে যান। এরপর ফাহিম সালেহ তার অ্যাপার্টমেন্টে প্রবেশ করেন। তখন সেই ব্যক্তি ফাহিম সালেহকে অনুসরণ করে। এরপর দুজনের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। এরই একপর্যায়ে খুন হন এই তরুণ উদ্যোক্তা।

বিজ্ঞাপন

ফাহিম সালেহ শুধু পাঠাও প্রতিষ্ঠার মধ্যে সীমাবদ্ধ ছিলেন না। ফাহিম নাইজেরিয়া আর কলম্বিয়ায়ও এমন আরও দুটি রাইড শেয়ারিং অ্যাপ কোম্পানির মালিক। সেসব নিয়েও ইদানিং নানা ধরনের সমস্যা হচ্ছিল। সেসব ঝামেলা থেকেও এই খুনের ঘটনা ঘটতে পারে বলে পুলিশ ধারণা করছে। এছাড়া আরও কিছু বিষয়কে সামনে রেখে তদন্ত করা হচ্ছে। এ খুনের ঘটনায় আমরা ক্ষুব্ধ, ব্যথিত এবং মর্মাহত। তার খুনে বিশ্ব এক সম্ভাবনাময় উদ্যোক্তাকে হারালো। এ ক্ষতি অপূরণীয়।

যুক্তরাষ্ট্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী শিগগিরই খুনিদের শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হবে বলে আমরা আশা করি। এছাড়া বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোর এ বিষয়ে যথাযথ উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। খুনিদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনতে কোন সহায়তা প্রয়োজন পরিবারকে সেই সহায়তা দিতে হবে। এক্ষেত্রে যথাযথ কূটনৈতিক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে আমরা সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।