চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অমির ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ এর নতুন সিজনে অনন্য রেকর্ড!

দর্শকদের তুমুল আগ্রহে থাকা সিরিয়াল কাজল আরেফিন অমির ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ (সিজন ফোর) প্রচার শুরু হয়েছে শুক্রবার থেকে। অনলাইনে নতুন সিজনটির প্রথম পর্ব উন্মুক্তের পর দেশীয় কনটেন্টগুলোর ইউটিউব ভিউয়ে অনন্য রেকর্ড গড়েছে!

মাত্র ৩ ঘণ্টায় ধ্রুব টিভির ইউটিউব থেকে ১০ লাখ দর্শক ফ্রুটিকা নিবেদিত ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট সিজন ফোর’ এর প্রথম পর্ব দেখেন। এতো অল্প সময়ে মিলিয়ন ভিউ অতিক্রম করার ঘটনা দেশের আর কোনো বিনোদন সংশ্লিষ্ট কনটেন্টে এখনও হয়নি বলে জানান অমি।

Reneta June

শনিবার কাপ্তাইয়ে শুটিং করছিলেন জনপ্রিয় এই পরিচালক। মুঠোফোনে চ্যানেল আই অনলাইনকে কাজল আরেফিন অমি বলেন, ইউটিউব রিয়েল টাইমে প্রথম ১ ঘণ্টায় ১১ লাখ ভিউ হয়। ৩ ঘণ্টায় ২০ লাখ ছাড়ায়।

বিজ্ঞাপন

“কিন্তু ইউটিউবের পলিসি অনুযায়ী শো করেছে ৩ ঘণ্টায় ১০ লাখ, ৪ ঘণ্টায় ২০ লাখ এবং ৭ ঘণ্টায় ৩০ লাখ প্লাস ভিউ। বর্তমানে ১৮ ঘণ্টায় সর্বমোট ৪০ লাখের বেশি ভিউ। এমন ঘটনা আমাদের দেশের আর কোনো কনটেন্টে অতীতে ঘটনেনি, যা ব্যাচেলর পয়েন্ট সিজন ফোরের মাধ্যমে প্রথম হলো।”

অমি আরো বলেন, রেকর্ড পরিমাণ এই ভিউয়ের মাধ্যমে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, মানুষ এতদিন নাটকটির জন্য তীর্থের কাকের মতো হয়ে ছিল। নির্মাতা হিসেবে আমার কাজের প্রতি মানুষের এই আগ্রহ আমার জন্য অনেক বড় অর্জনের বিষয়। আমি প্রাউড ফিল করছি।

সিজন ফোর এর প্রথম পর্বই দর্শকদের মাঝে এতো সাড়া ফেলবে সেটি ধারণায় ছিল না ‘ভাইরাল গার্ল’, ‘আপন’ এর নাটক বানানো পরিচালক অমির।এমনকি নাটকটি নির্মাণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট শিল্পীসহ অন্যরাও আন্দাজ করতে পারেননি।

অমি বলেন, যে পরিমাণ ভিউ হয়েছে এটা নিয়মিত ঘটনা নয়। এবারই প্রথম ঘটনা। এমন কিছু হবে ধারণার বাইরে ছিল। এর আগে একদিনে বা ৭ ঘণ্টায় মিলিয়ন ভিউ হয়েছে। কিন্তু ৩ ঘণ্টায় মিলিয়ন অতিক্রম করবে এটা আমার টিমের কাছেও অপ্রত্যাশিত ছিল।

“কাপ্তাইয়ে শুটিং করছি। ব্যাচেলর পয়েন্টের অনেকেই এখানে আছে। আমরা প্রত্যেকেই ভীষণ এক্সাইটেড আছি। আমার মাঝেমধ্যে টেনশন হচ্ছে আবার ইমোশনাল হয়ে পড়ছি।”

কাজল আরেফিন অমি মনে করেন, এ নাটকের প্রত্যেক শিল্পী থেকে শুরু করে জড়িতরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছেন কাজটি ভালোভাবে করার। সেই সাথে লাখ লাখ দর্শকদের ভালোবাসা ও সাপোর্ট শুরু থেকেই আছে। এসব কারণে ব্যাচেলর পয়েন্ট এর আগের তিনটি সিজনের মতো নতুন সিজনও দর্শক লুফে নিয়েছে।

তরুণ প্রজন্মের জীবনযাপন, আবেগ, হাসি ও আনন্দ নিয়ে নির্মিত এই ধারাবাহিকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন মিশু সাব্বির, পলাশ, চাষী আলম, মারজুক রাসেল, সাবিলা নূর, সানজানা সরকার রিয়া, ফারিয়া শাহরিন, শরাফ আহমেদ জীবন, সুমন পাটোয়ারী, মনিরা মিঠু, আবদুল্লাহ রানা, শিমুল শর্মা, পারসা ইভানা ও পাভেলসহ অনেকেই।