চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

চিকিৎসা অবহেলায় ছাত্রের মৃত্যুর অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মামলা

Nagod
Bkash July

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী এমজিএম শাহরিয়ারের চিকিৎসায় অবহেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থীদের আহত করার ঘটনায় মামলা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন৷

Reneta June

শনিবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আব্দুস সালাম বিবাদী হয়ে রাজশাহী নগরীর রাজপাড়া থানায় মামলার এই আবেদন করেন৷ রাতে মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করা হয়। রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম এ তথ্য নিশ্চিত করেন৷

অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়, গত ১৯ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী শাহরিয়ার শহীদ হবিবুর রহমান হলের তৃতীয় তলার ছাদ থেকে নিচে পড়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পান। এমতাবস্থায় তাকে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেওয়া হলে কোনো প্রকার চিকিৎসা না দিয়ে চিকিৎসক শাহরিয়ারকে আইসিইউতে না নিয়ে ৮ নম্বর ওয়ার্ডে পাঠান। ৮ নম্বর ওয়ার্ডে গিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা অনেক ডাকাডাকির পর চিকিৎসক ও নার্স আহত শাহরিয়ারের কাছে আসেন এবং নানা অযুহাতে চিকিৎসা দিতে কালক্ষেপণ করতে থাকেন। ফলে সেখানেই বিনা চিকিৎসায় শাহরিয়ার মৃত্যুবরণ করে।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, চিকিৎসকরা সঠিক সময়ে চিকিৎসা শুরু করলে শাহরিয়ারের বাঁচার সম্ভাবনা ছিল বলে ছাত্রদের বিশ্বাস। শাহরিয়ারের মৃত্যুর বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে তার সহপাঠী ও বন্ধুরা রামেক হাসপাতালে পৌঁছায় এবং কর্তব্যে অবহেলাজনিত মৃত্যুকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের মাঝে এক করুণ শোকাবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। ফলে শিক্ষার্থীরা শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকে। সেই সময় ৮ নম্বর ওয়ার্ড ও তার আশপাশের ওয়ার্ডের চিকিৎসক, ইন্টার্ন, নার্স-ব্রাদার, আনসার ও তাদের উশৃঙ্খল সহযোগিরা ন্যাক্কারজনকভাবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অবরুদ্ধ করে লাঠি ও শল্যচিকিৎসায় ব্যবহৃত ধারালো যন্ত্রপাতি দিয়ে হামলা চালায়।

অভিযোগে বলা হয়, এতে আনুমানিক শতাধিক শিক্ষার্থীকে গুরুতরভাবে আহত করে। আহত শিক্ষার্থীদের অনেককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাকেন্দ্র, বারিন্দ মেডিকেলসহ রাজশাহীর অন্যান্য বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

এর আগে, গত বুধবার (১৮ অক্টোবর) রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ হবিবুর রহমান হলের বারান্দা থেকে পড়ে গুরুতর আহত হন মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষার্থী এম জি এম শাহরিয়ার। আহতাবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে হাসপাতালে চিকিৎসা দিতে কালক্ষেপণ করার অভিযোগ তোলেন রাবি শিক্ষার্থীরা। পরবর্তীতে হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক, ওয়ার্ড বয় ও আনসাররা শিক্ষার্থীদের ওপর লাঠিচার্জ করে৷ একপর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন৷ এতে রাবির বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন৷

BSH
Bellow Post-Green View