চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
ব্রাউজিং ট্যাগ

অজয় রায়

আমৃত্যু সংগ্রামী অজয় দা

ড. নুর মোহাম্মদ তালুকদার: আমার লেখার অভ্যাস নেই একেবারেই। কেউ কিছু লিখতে বললে কৌশলে এড়িয়ে যাই। অজয় রায়- আমাদের অজয় দা’র উপর একটি স্মারক গ্রন্থ প্রকাশের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে, তার ৮৯ তম জন্মবার্ষিকীতে তা প্রকাশিত হবে। এজন্য কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তির কাছ থেকে লেখা সংগ্রহের দায়িত্ব আমাকে দিয়েছেন উদ্যোক্তাগণ। আমাকেও একটা কিছু লেখার জন্য তারা বলেছেন। কারণ তার দীর্ঘদিনের পরিচিত ব্যক্তি যারা এখনও বেঁচে আছেন তাদের একজন আমি। তাই এ লেখার প্রয়াস। অজয় দা’র অনুপস্থিতির এক বছরে আজ অনুধাবন করতে পারি কত বড় মাপের মানুষ ছিলেন আমাদের প্রিয় অজয় দা।…

উল্টোপথে হাঁটছে বাংলাদেশ: অজয় রায়

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যাপক অজয় রায় মনে করেন, অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের মধ্যদিয়ে স্বাধীন হওয়া বাংলাদেশের যাত্রা ছিল প্রগতির পথে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান ছিল সেখানে। কিন্তু ধর্মীয় উগ্রবাদ, মৌলবাদ এবং জঙ্গিবাদের আগ্রাসনে বাংলাদেশের চিরচেনা সে চেহারা আজ অনেকটাই বিবর্ণ। রাষ্ট্রের প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে ধর্মীয়করণের চেষ্টায় সে অগ্রযাত্রা থমকে গিয়ে হঠাৎই যেন উল্টোপথে হাঁটছে বাংলাদেশ। দুই বছর আগে ধর্মীয় উগ্রবাদীদের হাতে নিহত বিজ্ঞান লেখক ও ব্লগার অভিজিৎ রায়ের বাবা চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, 'আদর্শিক…

‘এতো ত্যাগের রাষ্ট্রকে ব্যর্থ হতে দিতে পারি না’

‘অনেক রক্তে এই রাষ্ট্র পেয়েছি, এতো ত্যাগের রাষ্ট্রকে এভাবে ব্যর্থ হতে দিতে পারি না’, অব্যাহত মানুষ হত্যার মাধ্যমে সমগ্র দেশ-জাতিকে ভীতসন্ত্রস্ত-আতঙ্কিত করে জঙ্গিবাদী বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার বিরুদ্ধে আয়োজিত সংহতি সমাবেশে এমন কথা বলেছেন দেশ বরেণ্য অধ্যাপক এবং নিহত বিজ্ঞান লেখক অভিজিৎ রায়ের বাবা অজয় রায়।মৃত্যুর এই মিছিল থামাতে শাহবাগে আয়োজিত মানুষ হত্যা ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সংহতি সমাবেশে সভাপতিত্ব করার কথা থাকলেও শারীরিক অসুস্থতার কারণে অধ্যাপক অজয় নিজে উপস্থিত হতে পারেননি। তবে টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে দেশজুড়ে চলমান গুপ্ত হত্যার…

বাংলাদেশে মুক্তচিন্তার সঙ্কট এবং মৌলবাদ-জঙ্গীবাদ-সাম্প্রদায়িকতার উত্থান

অধ্যাপক কবীর চৌধুরী প্রথিতযশা একাডেমিসিয়ান বুদ্ধিজীবী। একাধারে লেখক, নাট্য ব্যক্তিত্ব, সফল অনুবাদক এবং সাংস্কৃৃতিক ও সামাজিক সক্রিয় ব্যক্তিত্ব। তিনি জন্মে ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১৯২৩ সালে ৯ ফেব্রুয়ারি তারিখে, যদিও তার পৈত্রিক বাসভূমি নোয়াখালি জেলায়। তার বাবা ছিলেন খানবাহাদুর আবদুল হালিম চৌধুরী, মায়ের নাম উম্মে কবীর আফিয়া চৌধুরী। তার স্ত্রী ছিলেন সুপরিচিত শিক্ষাবিদ ও সমাজকর্মী। ১৯৪৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয় থেকে ইংজেীতে বিএ (অনার্স) এবং পরের বছর এমএ ডিগ্রী নেন। দুটি পরীক্ষাতেই প্রথম শ্রেণীতে প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন। ১৯৫৭-৫৮…

বাংলাদেশে মুক্তচিন্তার সঙ্কট এবং মৌলবাদ-জঙ্গীবাদ-সাম্প্রদায়িকতার উত্থান

অধ্যাপক কবীর চৌধুরী প্রথিতযশা একাডেমিসিয়ান বুদ্ধিজীবী। একাধারে লেখক, নাট্য ব্যক্তিত্ব, সফল অনুবাদক এবং সাংস্কৃৃতিক ও সামাজিক সক্রিয় ব্যক্তিত্ব। তিনি জন্মে ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১৯২৩ সালে ৯ ফেব্রুয়ারি তারিখে, যদিও তার পৈত্রিক বাসভূমি নোয়াখালি জেলায়। তার বাবা ছিলেন খানবাহাদুর আবদুল হালিম চৌধুরী, মায়ের নাম উম্মে কবীর আফিয়া চৌধুরী। তার স্ত্রী ছিলেন সুপরিচিত শিক্ষাবিদ ও সমাজকর্মী। ১৯৪৩ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যলয় থেকে ইংজেীতে বিএ (অনার্স) এবং পরের বছর এমএ ডিগ্রী নেন। দুটি পরীক্ষাতেই প্রথম শ্রেণীতে প্রথম স্থান অধিকার করেছিলেন। ১৯৫৭-৫৮…