চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
ব্রাউজিং

জিয়া হত্যাকান্ড

৩০ মে, ১৯৮১। চট্টগ্রামে নিহত হন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। রাষ্ট্রপতি নিহত হওয়ার পর চট্টগ্রামের জিওসি মেজর জেনারেল মঞ্জুরকে হত্যা করা হয়। পরে সেনা বিদ্রোহের অপরাধে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করা হয় ১২ সেনা কর্মকর্তাকে। জিয়া-মঞ্জুর এবং মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত সেনা কর্মকর্তা— সকলেই ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা।
এভাবে মুক্তিযোদ্ধা সেনা কর্মকর্তা হত্যার মিছিল চলে দেশে।
কিন্তু জিয়া হত্যা মামলার বিচার না হওয়ায় উন্মোচিত হয়নি নেপথ্যের ষড়যন্ত্র।
প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীতে আজ শুরু হচ্ছে চ্যানেল আই অনলাইনের বিশেষ ধারাবাহিক প্রতিবেদন:
জিয়া হত্যাকাণ্ড: ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে ষড়যন্ত্র।
গবেষণা এবং সাক্ষাতকারের ভিত্তিতে প্রতিবেদনগুলো রচনা করেছেন সাখাওয়াত আল আমিন

জিয়া হত্যাকাণ্ড: যে রহস্যের জট খোলেনি

১৯৮১ সালের ৩০ মে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে হত্যা করার পর এর দায় পড়ে সেনাবাহিনীর চট্টগ্রাম ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মঞ্জুরের ওপর। পুলিশের হাতে জেনারেল মঞ্জুর গ্রেপ্তার হওয়ার পর সেই সময়ের সেনাপ্রধান লে.…
আরও...

জিয়া হত্যার নয়, সেনা বিদ্রোহের বিচার হয়, দণ্ডিতদের বেশিরভাগই মুক্তিযোদ্ধা

রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান হত্যার ৩৬ বছর পেরিয়ে গেলেও আজ সেই হত্যাকাণ্ডের বিচার হয়নি। ১৯৮১ সালের ২৯ ও ৩০ মে’র মধ্যবর্তী রাতে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে জিয়া হত্যাকাণ্ডকে কেন্দ্র করে ওই বছরের ৪ জুলাই যে কোর্ট মার্শালটি গঠিত হয় সেখানে মূলত : সেনা…
আরও...

জিয়া হত্যাকাণ্ড: চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে সেদিন কী ঘটেছিল

১৯৮১ সালের ৩০ মে দলীয় সফরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে অবস্থানকালীন কিছু সেনাসদস্যের হাতে নিহত হন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। সেদিন রাতে সার্কিট হাউসে আসলে কী ঘটেছিল তার বিস্তারিত বর্ণনা উঠে এসেছে চট্টগ্রামের তৎকালীন ডেপুটি কমিশনার (ডিসি)…
আরও...