চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Oikko

টিমবাসে কেন খেলা দেখেছেন মরিনহো?

Oikko SME

শিষ্যদের উপর নিশ্চিতভাবেই খুশি হয়েছিলেন হোসে মরিনহো। প্রতিপক্ষের মাঠে পিছিয়ে পড়েও পাওলো দিবালা ও ক্রিস স্মলিংয়ের গোলে রোমা তুলেছে পূর্ণ তিন পয়েন্ট। সেসব ছাপিয়ে গেছে দর্শক হিসেবে মরিনহোর পাগলামি। টিমবাসে বসে খেলা দেখা থেকে শুরু করে ইন্টার মিলানকে হারানোর উদযাপনে কমতি রাখেনি ৫৯ বর্ষী কোচ।

Reneta June

মিলানের মাঠ সান সিরোতে না থেকে কেন টিম বাসে বসে খেলা দেখলেন মরিনহো? তর্কসাপেক্ষে বিশ্বের অন্যতম সেরা কোচকে ঘিরে প্রশ্নটি উঠছে। জবাবেও মিলছে, পর্তুগিজ কোচের পাগলাটে স্বভাব। মাঠে ও মাঠের বাইরে সবসময় আলোচনার খোরাক জন্ম দেয়া মরিনহো নিষিদ্ধ হয়েছিলেন এক ম্যাচ।

সিরি আ’তে আটলান্টার বিপক্ষে ১-০ ব্যবধানে হারার ম্যাচে মেজাজ হারিয়েছিলেন রোমা বস। সরাসরি লাল কার্ড দেখেছিলেন। সেটার খেসারত হিসেবে মাঠের বাইরে টিম বাসে বসে খেলা দেখেছেন মরিনহো। অবশ্য উদযাপনের কমতি রাখেননি, দিবালা-স্মলিংরাও রেখেছেন বসের মান। ২-১ গোলে জেতার রাতে উল্লাসটা শুরু তাই বাসের ভেতর থেকেই!

দিবালাদের কোচ খেলা চলাকালে ইনস্টাগ্রামে ভিডিও পোস্ট করেছেন। বাসের ভিতর খেলা দেখার দৃশ্য দেখিয়ে লিখেছেন, ‘আমি তো এখানে মারা যাচ্ছি!’ এটাই শেষ নয়, জয় নিশ্চিতের পর বাসের স্টাফদের সঙ্গে উন্মাদের মতো নেচেছেন তিনি। পরে দিবালার পোস্টে দেখা যায় ড্রেসিংরুমেও মেতে উঠেছিলেন রোমা বস।

ইন্টারের তারকা ফেদেরিকো ডিমার্কোর গোলে ম্যাচের ৩০ মিনিটে পিছিয়ে পড়েছিল সফরকারী দল। নয় মিনিট পর সমতায় ফেরান জুভেন্টাস থেকে রোমায় যাওয়া আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার দিবালা। খেলার ৭৫ মিনিটে জয়সূচক গোলটি করেন স্মলিং। গুরুত্বপূর্ণ জয়ে ১৬ পয়েন্ট তুলে টেবিলের ৫ নম্বরে উঠে এসেছে মরিনহোর শিষ্যরা। ২০ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে নাপোলি।

Oikko Uddokta